অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন ইমন

Print

বান্দরবনের শৈলপ্রপাতে ঝর্নার পানিতে শুটিং করছিলেন ইমন। রোববার বেলা ১১ টার দিকে ঝর্ণার পানিতে শট দিতে গিয়ে তিনি ভেসে যান। এসময় ঝর্নার পানিতে পাথরে ধাক্কা খেয়ে হাত, পায়ে প্রচণ্ড ব্যাথা পান। শরীরের অনেক অংশ থেঁতলেও যায় তার।
অবস্থা বেগতিক দেখে দূর থেকে শুটিং ইউনিটের লোকজন দৌড়ে এসে তাকে পানির স্রোত থেকে টেনে তোলেন। নির্মাতা মাহমুদ দিদারের ‌‘না জাগতিক না পুরান’ নামের টেলিছবির শুটিংয়ে এমন দুর্ঘটনার কবলে পড়েন এই অভিনেতা।

এদিকে ইমন বলেন, ‘স্রোতে ভাসা একটি দৃশ্য ছিল। আমি ভাবলাম রিস্ক নিলে কাজটা ভাল হবে। যেই ভাবনা সেই কাজ। কিন্তু স্রোত আসে অনেক জোরে। আমি কিছুই বুঝে ওঠার আগেই বড় দুর্ঘটনার সম্মুখীন হই। এরপর তিনজন দড়ি দিয়ে টেনে তুলে আমাকে রক্ষা করে। অল্পের জন্য বেঁচে গেছি। এখনও ওই দৃশ্য চোখে ভাসলে গা শিওরে উঠছে।’
নির্মাতা মাহমুদ দিদার বলেন, ‘যেখানে শুটিং করছিলাম ওই জায়গাটা অনেক বিপদজনক। এর আগে অনেকের প্রাণ নাশও হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘কদিন ধরে অতিরিক্ত বৃষ্টি পাতের ফলে ঝর্ণার পানি ও স্রোত বেড়ে গেছে। যার জন্য ইমন ভাই ঠিক বুঝে ওঠার আগেই আঘাত পান। তিনি অল্পের জন্য বেঁচে গেছেন। এখন তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। আগামী পরশুদিন আমরা ঢাকা ফিরবো।’
নির্মাতা আরও জানান, গেল ১০ আগস্ট থেকে বান্দরবনে ‘না জাগতিক না পুরান’ টেলিছবির শুটিং হচ্ছে। ইমন ছাড়াও এতে অভিনয় করছেন প্রভা, জীবন প্রমুখ। আগামী ঈদে এটি চ্যানেল আইতে প্রচার হবে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 161 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ