আফগানিস্তানে মার্কিন হামলায় নিহত জঙ্গির তালিকায় একাধিক বাংলাদেশি

Print

আফগানিস্তানে গত সপ্তাহে আইএস জঙ্গিদের অবস্থান লক্ষ্য করে চালানো মার্কিন হামলায় নিহত জঙ্গিদের মধ্যে একাধিক বাংলাদেশি নাগরিক রয়েছে। এছাড়া নিহতদের তালিকায় রয়েছে ভারত, পাকিস্তান, তাজিকিস্তান, উজবেকিস্তান, রাশিয়াসহ বেশকটি দেশের নাগরিকরা। জার্মান সংবাদমাধ্যম ডিপিএ ইন্টারন্যাশনাল এবং রেডিও আজাদি নামের একটি আফগান রেডিও এ খবর দিয়েছে।
আইএস জঙ্গিদের অবস্থান লক্ষ্য করে ১৩ এপ্রিল যে বোমাটি নিক্ষেপ করা হয় সেটিকে জিবিইউ-৪৩ বলা হয়। এই বোমাটিকে ‘মাদার অব অল বম্বস’ মনে করা হয়। পারমাণবিক বোমার পর এটিই বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী বোমা। ওই হামলার পর ১৮ এপ্রিল এ ঘটনায় নিহতদের জাতীয়তা সম্পর্কে জানিয়েছেন আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মোহাম্মদ রাদমানিশ। তিনি বলেন, হামলায় নিহত জঙ্গিদের অধিকাংশই পাকিস্তান, ভারত, ফিলিপাইন ও বাংলাদেশের।

পেন্টাগন এবং আফগান কর্মকর্তারা বলছেন, ওই হামলায় আইএসের শীর্ষস্থানীয় চার কমান্ডারসহ ৯৬ জঙ্গি নিহত হয়েছে।
মাদার অব অল বম্বস হিসেবে পরিচিত এ ধরনের বোমার একেকটির ওজন হয় ১০ হাজার কিলোগ্রাম। এর প্রতিটিতে থাকে ৮ হাজার ১৬৪ কিলোগ্রাম বিস্ফোরক। এটার বিস্ফোরণ ক্ষমতা ১১টন টিএনটির সমান। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় হিরোশিমায় নিক্ষেপিত লিটল বয় নামক পারমাণবিক বোমাটির বিস্ফোরণ ক্ষমতা ছিল ১৫ টন।
ইরাকেও এ ধরনের বোমা মজুদ করা হয়েছিল। তবে কখনও ব্যবহার করা হয়নি। জিপিএস নিয়ন্ত্রিত এই বোমাটি ইরাক যুদ্ধ শুরুর কয়েক দিন আগে ২০০৩ সালের মার্চ মাসে পরীক্ষামূলকভাবে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছিল।
মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগনের মুখপাত্র অ্যাডাম স্টাম্প বলেন, এই বোমাটি যুদ্ধে এই প্রথমবারের মতো ব্যবহার করা হয়েছে। বোমাটি এমসি-১৩০ যুদ্ধ বিমান থেকে নিক্ষেপ করা হয়। আইএস জঙ্গিদের গোপন সুড়ঙ্গ, গুহা ও বাংকারে এ বোমা নিক্ষেপ করা হয়।
আফগানিস্তানে মার্কিন ও আন্তর্জাতিক বাহিনীর প্রধান জেনারেল জন নিকোলসন বলেন, আইএসের বিরুদ্ধে অভিযানে বাধা মোকাবিলা এবং নিজেদের আক্রমণাত্মক অবস্থান ধরে রাখতে এটাই সবচেয়ে কার্যকর অস্ত্র।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 72 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ