আমাকে মন্ত্রী বলবেন না

Print

‘আপনারা আমাকে মন্ত্রী বলবেন না। কারন আমি এখানে মন্ত্রী নয়; আমি এই লাকসামেরই সন্তান। লাকসাম আমার অনেক স্মৃতি বিজড়িত।’ এভাবে নিজের স্মৃতি রোমন্থন করলেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ.হ.ম মোস্তফা কামাল এমপি।
আজ শনিবার লাকসামে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের মাঝে নগদ অর্থ ও ঢেউটিন বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথিকে বক্তারা মন্ত্রী সম্বোধন করে বক্তব্য দিলে তিনি নিজেকে মন্ত্রী নয়, লাকসামের সন্তান বলে পরিচয় দেন। তিনি বলেন, আমি বৃহত্তর লাকসামের বাসিন্দা।
এ সময় পরিকল্পনা মন্ত্রী লাকসাম পৌরসভার উন্নয়নে ৫০ কোটি টাকা, উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের জন্য ২০কোটি টাকা বরাদ্দ এবং লাকসাম নবাব ফয়জুন্নেছা সরকারী কলেজের আধুনিকায়ন ও ডাকাতিয়া নদী খননের ঘোষণা দেন।
লাকসাম ব্যাংক রোড চত্বরে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো: জাহাংগীর আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মো: তাজুল ইসলাম এমপি। বক্তব্য রাখেন, লাকসাম উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইউনুছ ভুঁইয়া, লাকসাম পৌরসভার মেয়র অধ্যাপক আবুল খায়ের, দৌলতগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো: তাবারক উল্লাহ কায়েস, লাকসাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রফিকুল ইসলাম হিরা, ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী অপূর্ব সাহা রাম।
অনুষ্ঠানে ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের বরাদ্দকৃত ক্ষতিগ্রস্ত ৮২ জন দোকান মালিক, ৬৬ জন ভাড়াটিয়া ব্যবসায়ীকে ৬ লাখ ৮৭ হাজার টাকা ও ১৬৪ বান্ডিল ঢেউটিন এবং লাকসাম পৌরসভার অর্থায়নে ক্ষতিগ্রস্ত দর্জিদের মাঝে ১৫টি সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়।
উল্লেখ্য, গত ২০ জানুয়ারি লাকসামের প্রাণকেন্দ্র দৌলতগঞ্জ বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১৪৮টি দোকান ঘর সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়। এতে আনুমানিক ১শ’ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 195 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ