ইউটিউবে জনপ্রিয় হওয়ার উপায়

Print

ইন্টারনেট ও সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে আপনি নিজেকে কিভাবে উপস্থাপন করছেন সেটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এমন অনেক ব্যক্তি আছেন যারা ইন্টারনেট-ভিত্তিক মাধ্যমগুলোতে বেশ জনপ্রিয়।
এক্ষেত্রে ইউটিউবের কথাই ধরা যাক।

অনেকে আছেন যাদের ভিডিও ইউটিউবে হাজার-হাজার কিংবা লাখ-লাখ মানুষ দেখছে। তারা দর্শকদের কাছে ইউটিউব স্টার হিসেবে পরিচিতি।
কিভাবে তারা ইউটিউব স্টার হয়ে উঠলেন? কেন তাদের ভিডিওগুলো হাজার-হাজার মানুষ ইন্টারনেটে দেখছে? আপনিও কি চাইলে ইউটিউব স্টার হতে পারেন?
এসব প্রশ্নের উত্তর আজকাল অনেকেই খোঁজেন।
আমেরিকার ইউটিউব স্টার জাস্টিন এসকালোনা মনে করেন, চাইলে ধীরে-ধীরে আপনিও হয়ে উঠতে পারেন ইউটিউব স্টার।
শিকাগোতে বসবাসরত এ তরুণ বেশ কয়েকটি উপায় বাতলে দিয়েছেন যার মাধ্যমে আপনি ইউটিউবে জনপ্রিয় হতে পারেন।
প্রথমত
ইউটিউবে ভিডিও তৈরির জন্য তিনি পুরো আমেরিকা ঘুরে বেড়িয়েছেন। প্রথম দেড় বছর তিনি যত জায়গায় গিয়েছেন সব জায়গায় তিনি ভিডিও করেছেন এবং সেগুলো ইউটিউবে আপলোড করেছেন।
দ্বিতীয়ত
যখন আপনি কোন ভিডিও তৈরি করতে যাবেন তার আগে আপনাকে ভাবতে হবে – কেন আপনি এটা করতে চাচ্ছেন?
আপনার যদি মনে হয় শুধু মজা করার জন্য আপনি এটা করেছন- তাহলে সেটা না করাই ভালো। আগে ঠিক করতে হবে এ বিষয়টিতে মানুষের আগ্রহ থাকবে কী-না।
তৃতীয়ত
আপনি যে ভিডিওটি করার সিদ্ধান্ত নেবেন সেটি অন্যদের চেয়ে কতটা আলাদা? এ বিষয়টি ভাবতে হবে। কারণ ইউটিউবে হাজার-হাজার ভিডিও আছে।
আপনি যদি ব্যতিক্রমী কিছু করতে না পারেন, তাহলে দর্শকরা সেদিকে আকৃষ্ট হবে না।
চতুর্থত
শুধু ভিডিও করলেই হবে না। ভিডিওটি মানসম্মত হচ্ছে কী-না সেদিকেও নজর রাখতে হবে।
ভালো করে ভিডিও সম্পাদনা করতে হবে। তারপর সেটি আপলোড করতে হবে। কোন রকম একটি ভিডিও করে দিলেই সেটি মানুষজন দেখবে না।
পঞ্চমত
ইউটিউবে ভিডিও শুরু করতে ভয় পাবেন না । আপনি হয়তো মনে করতে পারেন যে আপনার দামী ভিডিও ক্যামেরা নেই, ভালো যন্ত্রপাতি নেই।
শুধু ভালো যন্ত্রপাতি থাকলেই ভিডিও জনপ্রিয় হয় না। আপনার কাছে থাকা মোবাইল ফোনের ক্যামেরা হতে পারে আপনার সম্বল।
ভিডিও করার জন্য ভালো আইডিয়া আপনার আছে কী-না সেটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। যে বিষয়টি আপনি ভিডিও করছেন, সেটি যদি মজাদার কিংবা গুরুত্বপূর্ণ কিছু হয় তাহলে সেটি দর্শকদের আকর্ষণ করবে।
ভিডিওগুলো এমনভাবে তৈরি করতে হবে যাতে দর্শকরা সেগুলোর সাথে নিজেদের সংযোগ স্থাপন করতে পারে। দর্শকরা যাতে মনে করে আপনি তাদেরই একজন।
দর্শকদের দৈনন্দিন জীবনকে নিজের জীবনের সাথে একাত্ম করতে হবে। কোন ভুয়া বা মিথ্যা ভিডিও তৈরি করে জনপ্রিয়তা পাবার চেষ্টা না করাই ভালো। আপনার প্রতিদিনের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ এবং মজাদার বিষয়গুলো তুলে ধরুন।
এভাবেই আপনি হতে পারেন ইউটিউব স্টার। তাহলে আজই শুরু করুন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 146 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ