ইসরায়েলি বাহিনীর গুলিতে দুই ফিলিস্তিনি তরুণ নিহত

Print

ফিলিস্তিনি তরুণ নিহত হয়েছেন। ইসরায়েলি বাহিনীর দাবি, বৃহস্পতিবার গাজা-ইসরায়েল সীমান্ত বেষ্টনীর কাছে ফিলিস্তিনিরা সেনাসদস্যদের লক্ষ্য করে পাথর নিক্ষেপ করে। এ সময় সেনাসদস্যরাও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে ১৬ বছরের এক তরুণ গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়। আহত হয় আরও দুই জন। পৃথক ঘটনায় সেনাসদস্যদের গুলিতে ১৬ বছরের আরেক ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।
ফাইল ছবিইসরায়েলের সামরিক বাহিনীর এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, গাজা সীমান্তসহ দুটি স্থানে ফিলিস্তিনিদের সহিংস বিক্ষোভ দমন করেছেন তারা। তার দাবি, গাজা সীমান্তে অর্ধশত ফিলিস্তিনির বিক্ষোভ থেকে সেনাসদস্যদের লক্ষ্য করে পাথর নিক্ষেপ করা হয়। সেনাদের দিকে জ্বলন্ত টায়ার ঠেলে দেওয়া হয়।
দ্বিতীয় ঘটনাটি ঘটে পশ্চিম তীরের নাবলুস শহরের কাছে বুরিন গ্রামে। ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ওই গ্রামে বিক্ষোভ চলাকালে ইসরায়েলি সেনাদের গুলিতে ১৬ বছরের এক তরুণ নিহত হয়েছেন।
এদিকে তিন বছরের এক ফিলিস্তিনি শিশুর মাথায় গুলিবর্ষণ করেছে ইসরায়েলি সেনারা। পশ্চিম তীরের তুবাস শহরে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর একটি ট্রেনিং সেশন চলাকালে সেনাদের হাতে শিশুটি গুলিবিদ্ধ হয়।
ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মাথায় বুলেট আঘাত হানার পর শিশুটিকে নাবলুসে রাফিদিয়া সার্জিক্যাল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তার অবস্থা বর্তমানে স্থিতিশীল রয়েছে।
২০১৬ সালের ৬ ডিসেম্বর জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর প্রতিবাদে নতুন করে বিক্ষোভে ফেটে পড়ে ফিলিস্তিনিরা। শক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে এসব বিক্ষোভ দমনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েলি বাহিনী।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 77 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ