ঈদকে কেন্দ্র করে সক্রিয় হচ্ছে অপরাধীরা

Print

পবিত্র রমজান ও ঈদুল ফিতরকে কেন্দ্র করে বেশ কিছু অপরাধী চক্র সক্রিয় হয়ে উঠছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। গতকাল রাতে রাজধানীতে ১৬ জন ভুয়া গোয়েন্দাকে আটকের পর আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগর পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মো. আবদুল বাতেন এ কথা বলেন।
শনিবার দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

আবদুল বাতেন বলেন, ‘গত সপ্তাহে ডিএমপি কমিশনার সকল বিভাগের উপকমিশনারদের এসব অপরাধীদের ব্যাপারে সতর্ক করেন। এই অপরাধী চক্র রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ডিবি পরিচয় দিয়ে ছিনতাই ডাকাতি করে থাকে।’
গতকাল রাত একটার দিকে রামপুরা এলাকা থেকে নয়জন ভুয়া গোয়েন্দা পুলিশকে আটক করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পূর্ব বিভাগের একটি দল। তারা হলেন- মো. জুয়েল রানা, মো. ইয়াসিন, মো. বাদল, মো. মোমেন আলী, মো. শহিদুল ইসলাম, মো. ফিরোজ, সৈয়দ মনিরুজ্জামান, মোহাম্মদ আলী এবং মো. সবুজ। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, গুলি, একটি ওয়াকিটকি, তিনটি ডিবির জ্যাকেট, হ্যান্ডকাফসহ বেশ কিছু সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।
অপর একটি অভিযানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কনভেনশন সেন্টারের সামনে থেকে সাত ভুয়া পুলিশকে আটক করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উত্তর বিভাগের একটি দল। আটকরা হলেন- মো. লিটন খাঁন, মো. বাবলু মিয়া ওরফে আকাশ, মো. মনির হোসেন, মো. ছাইদুর রহমান, মো. মনির হোসেন, মাহমুদুল হাসান মুন্না এবং মো. আফজাল হোসেন ওরফে শাহিন। এ সময় তাদের কাছ থেকে ছিনতাইকাজে ব্যবহার করা একটি টয়েটো হায়েস মাইক্রোবাস, দুটি খেলনা পিস্তল, একটি ওয়াকিটকি, এক জোড়া হাতকড়াসহ বিভিন্ন সরঞ্জমাদি উদ্ধার করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার বলেন, ‘পূর্ব বিভাগের গ্রেপ্তার করা চক্রটি আগে থেকেই তাদের সোর্স নিয়োগ করে। হুন্ডির টাকা লেনদেন বা বড় কোনো লেনেদেনের ক্ষেত্রে এই চক্রটি তাদের ফলো করে ডিবি পরিচয় দিয়ে ওইসব ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের টাকা লুট করে।’
রমজান মাস এবং ঈদুল ফিতরের আগে অতিরিক্ত টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএমপির সহযোগিতা নিতে ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।
এক প্রশ্নের জবাবে গোয়েন্দা কর্মকর্তা আবদুল বাতেন বলেন, ‘পুলিশের ব্যবহৃত সরঞ্জাম খোলা বাজারে বিক্রি হয়। তবে প্রতিটি দোকানে নির্দেশনা দেওয়া আছে যেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের পরিচিতি নিশ্চিত না হয়ে কোনো কিছু বিক্রি না করে। তবে বর্তমানে এই নিদেশনার কিছু ব্যত্যয় হচ্ছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 65 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ