ওষুধে মশা নয় কাবু হচ্ছে মানুষ

Print

দিন-রাতের বাছবিচার নেই, মশার কামড়ে অতিষ্ঠ মানুষ। অভিজাত এলাকা কিংবা বস্তি, অফিসপাড়া অথবা বাসাবাড়ি; মশার জ্বালায় কোথাও সুস্থির হয়ে দুদণ্ড তিষ্ঠানোর জো নেই। সারাক্ষণ চলে হাত-পা ছোড়াছুড়ি। এ অত্যাচার থেকে রেহাই পেতে বাধ্য হয়ে মশা নিধনের নানা ওষুধ কিনছে মানুষ। অলিগলিতে পাওয়া যায় কয়েল, স্প্রেসহ ইলেকট্রনিক নানা সরঞ্জাম। এ ছাড়া স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, সিটি করপোরেশন কিংবা পৌরসভার উদ্যোগে ফগার মেশিনের মাধ্যমে বড় পরিসরে ঘরের বাইরে স্প্রের ব্যবস্থাও রয়েছে। আছে কীটনাশক মিশ্রিত মশারিও। তবে মশাকে কাবু করা যাচ্ছে না কিছুতেই। উল্টো মশা নিধনের বাজারি সরঞ্জামের প্রয়োগ-অপ্রয়োগে ঝুঁকির মুখে পড়েছে জনস্বাস্থ্য।
বিশেষজ্ঞদের মতে, মশার ওষুধের ক্ষতিকর প্রতিক্রিয়ায় হাঁপানি, শ্বাসকষ্ট, ক্যান্সার, ফুসফুস, কিডনির রোগসহ নানা রোগের বিপদ বাড়ছে। মশার ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ও পণ্যের হার বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সেগুলোর মান ও প্রয়োগ নিয়েও বাড়ছে সংশয়।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 65 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ