কতটা যৌক্তিক ছিল ইনিংস ঘোষণা করাটা?

Print

ইনিংস ঘোষণা করাটা কতটা যৌক্তিক ছিল?

ক্রিকেটে যে কোনো কিছুই ঘটতে পারে। তারপরও আরো আধা ঘন্টা ব্যাট করলে অন্তত ৫০ রান যোগ হতে পারত। সাব্বির উইকেটে ছিলেন। হাত খুলে খেলছিলেন। দ্রুত আরো কিছু রান তুলে কেন ইনিংস ঘোষণা করলো না বাংলাদেশ? এই প্রশ্ন উঠতেই পারে।

বিশাল সংগ্রহের পর কী ওয়েলিংটন টেস্টে শতভাগ ড্রয়ের নিশ্চয়তা পেয়ে গেছে বাংলাদেশ? এই প্রশ্নটা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে। অন্তত ড্র নিশ্চিত- এই হিসেব কসেই ইনিংস ঘোষণা করা হয়ে থাকে। এরপর বোলিংয়ে শুরু হয় জয়ের হিসেব নিকেশ।

৮ উইকেটে ৫৯৫ রানের হিমালয়ে পৌঁছে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ। শনিবার তৃতীয় দিনে ১৪ ওভার ব্যাট করে আগের দিনের সঙ্গে ৫৩ রান যোগ করে টাইগাররা। হারাতে হয় মাত্র ২ উইকেট। ৫৪ করে অপরাজিত থাকেন সাব্বির। প্রথম দিন বৃষ্টি আর আলোর স্বল্পতার কারণে খেলায় হয় মাত্র ৪০.২ ওভার। তাতে বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৩ উইকেটে ১৫৪। দ্বিতীয় দিনে সাকিব ও মুশফিক অসামান্য কৃতিত্ব দেখান। সাকিব করেন ২১৭, মুশফিক ১৫৯। ৭ উইকেটে ৫৪২ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করে বাংলাদেশ।

এদিকে ব্যাটিংয়ে নেমে খুব দ্রুত রান তুলছে স্বাগতিকরা। এ রিপোর্ট লেখার সময় তৃতীয় দিন শেষে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ ৭৭ ওভারে ৩ উইকেটে ২৯২।

তাদের লক্ষ্য পরিস্কার, শেষ দিনের নাটকে ম্যাচ নিয়ে যাওয়া। দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশকে অল্পতে গুটিয়ে দেওয়া। নিজেদের মাঠে কিউই বোলাদের জন্য যেটা অসম্ভবও নয়। ৫৯৫ অনেক বড় স্কোর। কিন্তু দেশের মাটিতে নিউজিল্যান্ড যে বড়ই ভয়ঙ্কর দল। তাই এই স্কোরের সঙ্গে আরো ৪০/৫০ রান যোগ হলে পুরোপুরি নির্ভার থাকতে পারত বাংলাদেশ।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 125 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ