কলাপাড়ায় প্রাণে রক্ষা পেল ৩২ শিশু শিক্ষার্থী

Print

কলাপাড়ায় পিলার কার্নিশসহ পক্ষিয়াপাড়া স্কুল ভবনটির সামনের অংশ ধসে পড়ল।।

কলাপাড়ার পক্ষিয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনের সামনের বারান্দার পাঁচটি পিলার কার্ণিশসহ ধসে মাটির সঙ্গে মিশে গেছে। তখনও পঞ্চম শ্রেণির ৩২ শিশু শিক্ষার্থী ভেতরে ক্লাশ করছিল। ডাকচিৎকার করে দৌড়ে শিক্ষার্থীসহ শিক্ষক কোনমতে বাইরে বের হয়ে পড়েন। ফলে হতাহতের কোন ঘটনা ঘটেনি।  এখন এরা কোথায় লেখাপড়া করবে তা নিয়ে দেখা দিয়েছে বড় ধরনের সমস্যা। রোববার দুপুরে ক্ল¬াশ চলা কালে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। এ স্কুলভবনটি অনেক আগেই পরিত্যক্ত ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। স্কুল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি রাখাইন ট্যানথান বাবু এবং প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক জানান, ভবন সমস্যার কারনে বেড়িবাঁধের বাইরে কারিতাসের নিচতলার ওপেন এক ফ্লোরে কোনমতে তাদের অনুমতি নিয়ে চারটি শ্রেণির ক্লাশ চলছিল। আর পঞ্চম শ্রেণির ক্লাশ চলছিল ঝুকিপুর্ণ ভবনটির পুবদিকের একটি কক্ষে। কিন্তু এখন আর তা সম্ভব হচ্ছে না। এখন ভবনটি যে ভাবে দাড়িয়ে আছে তাতে যে কোন সময় সম্পুর্ণভাবে বিধ্বস্ত হওয়ার  শঙ্কা রয়েছে। বর্তমানে এ বিদ্যালয়টির ১৭৪ জন শিশু-শিক্ষার্থী তাদের লেখাপড়ার সমস্যা নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে। প্রধান শিক্ষকসহ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি জানান, দ্রুত একটি ভবন নির্মাণ করা কিংবা জরুরি ভিত্তিতে একটি টিনশেড ভবন নির্মাণ করা না হলে শিক্ষার্থীদের পাঠদানে চরম বিঘœ ঘটবে। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ আরিফুজ্জামান জানান, দ্রুত একটি নতুন ভবন নির্মাণের জন্য উর্ধতন কর্তৃপক্ষের পরিকল্পনা রয়েছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 39 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ