কিভাবে প্রথম ডেটিং করবেন?

Print

কিভাবে প্রথম ডেটিং করবেন? তবে শুরু করা যাক ডেটিং এর বিস্তারিত।

প্রেমের শুরুতেই আপনার বয়ফ্রেন্ড নিজে থেকেই আপনাকে ডেটিং এর প্রস্তাব দিতে পারেন। অথবা লংড্রাইভের আয়োজন করে ফেলতে পারেন। ডেটিং ক্রিমিনালদেরও একটি প্রথম হাতিয়ার। যখন কাউকে টার্গেট করে তখন তাকে ডেটিং অফার করে। ছেলেরা যেমন করে আজকাল মেয়েরাও করে। তাদের দুপক্ষেরই হয়ত কোন না কোন উদ্দ্যেশ্য থাকে। কেউ হয়ত অন্য কাউকে ফাঁদে ফেলতে চাইছে। আরেকটা সত্যি হলো জীবনে বেশিরভাগ বিষয় থাকে ভালো, ক্রিমিনাল কিংবা  ফাঁদ টাইপের হয় খুবই রেয়ার। দুই একটা প্রতি দশ হাজারে। তাই এই দিকটা যেমন বাদ দিয়ে রাখা যায় না তেমনি হিসাবে ধরাও যায় না।

স্থান নির্বাচন (সাইট সিলেকশন)ঃ এটা খুবই জরুরী। আজকাল অনেকেই ডেট করার জন্য ফ্ল্যাটেই জায়গা নির্বাচিত করে ফেলেন। দু’জনেই হয়ত রাজি হয়েও যান। কিন্তু মনে রাখবেন ফ্ল্যাট হচ্ছে সবচেয়ে বড় ঝুঁকিপুর্ন। যা তা হয়ে যেতে পারে। লাইফ শেষ করে দিতে পারে। বিশ্বাস মাপতে গিয়েও এই ভুলে পাঁ দিবেন না। সোজা কথা আপনি পাবলিক প্লেসে ছাড়া ডেটে রাজিই হবেন না। ছেলেমেয়ে দু’জনের জন্যই বিপদের। সিনেমা হল, কিংবা পার্ক অথবা হাইওয়ে রোড শফিং মল, রেস্তোরা হলে ঠিক আছে। প্রথম ডেটিং সফল করতে পারিপার্শিক ব্যপারগুলো মাথায় রাখা জরুরী।

ড্রেস আপ: জামাকাপড় পছন্দের ব্যাপারে সেরকম কোন রুলস নেই। তবে উৎকট কিংবা আবেদনময়ী কোন পোশাক না পরাই ভাল। সাধারণ পোশাক পরেই অনেক বেশি নজর কাড়া যেতে পারে। এব্যপারে অনেকেই ভুল করে ফেলেন। চোখ ধাঁধানো সব পোশাক পরে ভালবাসার মানুষকে যা দিতে চান, তা প্রথম ডেটিং এর জন্য নয়।  সেটা বিবাহের পরের বিষয়।

মেক আপ কিংবা রুপচর্চা: খুব সাধারন পোশাক যেমন পরতে পারেন তেমনি খুব সাধারন রুপচর্চা করা উচিত। চুল কাটা না হলে কেটে নেয়া উচিত। মেয়েদের লিপস্টিক কিংবা আইভ্রু ব্যাবহার এ হালকা হলেই ভাল। যতটা ন্যাচারাল থাকা যায় ততটাই ভালো।

সময়মত উপস্থিত হওয়া: ডেটিং এ এসে যদি নির্দিষ্ট সময়ে শুরুই করা না যায় তবে তা বিরক্তিকর হয়ে উঠতে পারে। তাই নির্দিষ্ট সময়ে উপস্থিত হওয়া উচিত।

কথা বলায় লক্ষ্যনীয়: কথা বলাটাই ডেটিং এর প্রধান উপজীব্য উপাদান। এক্ষেত্রে একে অন্যের চোখের দিকে তাকিয়ে কথাবলাটা জরুরী।  কখনোই নিচের দিকে কিংবা অন্যদিকে ফিরে কথা বলবেন না। আদর্শ শ্রোতা হউন। এক্সপ্রেশন কিংবা প্রকাশভঙ্গী ন্যাচারাল রাখুন। আজেবাজে বিষয়ে কথা না বলে নিজেদের সম্পর্কে জানার চেষ্টা করুন। প্রথম ডেট অনেক সময়েই শেষ ডেটিং হয়ে যেতে পারে। তাই একে অর্থবহ করার দ্বায়িত্ব আপনার ৫০%,  সংগীর বাকী ৫০ ভাগ। প্রথম ডেটিং এ নেগেটিভ বা নেতিবাচক কথা এড়িয়ে যাওয়া অনেক ভালো।

খাবার গ্রহনে সতর্কতা : খাবার গ্রহনে কখনো অস্বাভাবিক হওয়া উচিত নয়। এই যেমন একেবারেই কম খাওয়া, আবার অনেক বেশি খাওয়া। এটা খাব না ওটা খাব। মেন্যু নির্বাচনে বিতর্ক সৃষ্টি করা বোকামী। একজনের পচন্দকে অন্যজন সাপোর্ট দেয়াটা রেসপেক্ট করার মতই। তাই নিজেকে তুলে ধরার মধ্যে এই ছোটখাটো বিষয়কে এড়িয়ে যাবেন না।

কিভাবে প্রথম ডেটিং করবেনমুল্য পরিশোধ : আপনি ছেলে হন তবে আপনাকেই খরচের ভার নেয়া উচিত। তা না হলে আপনার ব্যাক্তিত্বে দুর্বলতা প্রকাশ পাবে। শুধু যে ছেলেরাই মুল্য পরিশোধ করবেন তা কিন্তু নয়। মেয়েরাও মুল্য পরিশোধের চেষ্টা করা উচিৎ।  খাবার গ্রহন,  পরিবহন খরচ ছাড়া আর তেমন খরচ হবার কথা নয়। প্রথম ডেটিং এ নিজের মত নিজেকে প্রকাশ করুন।

কিভাবে প্রথম ডেটিং করবেন তার আরো কিছু আইডিয়া কিংবা এক্সপেরিয়েন্স নিতে পুরনো যারা আছেন তাদের থেকে জেনে নিতে পারেন

সাবধানতা : কখনোই নির্জন জায়গায় ডেটিং এ যাবেন না। প্রতারক এর খপ্পরে পড়তে পারেন। বেশি টাকা পয়সা নিয়ে বের হবেন না। অসুস্থ্য অবস্থায় ডেটিং এ যাবেন না। এটা এত জরুরী কিছু নয়, জীবনটা জরুরী। কোন অপরিচিত প্রাইভেট কার ব্যবহার করবেন না। পাবলিক পরিবহন অনেক নিরাপদ। ক্রেডিট কার্ড কিংবা ডেবিট কার্ড সাবধানে ব্যবহার করুন। কথা বেশি না বলে শোনার চেষ্টা করুন। সংগীকে বিব্রত করার কোন চেষ্টা করবেন না। এতটা বিশ্বাস করবেন না যার ফলে তার সিলেক্টেড স্থান কিংবা গাড়িতে উঠে পড়বেন। এটা প্রথম ডেটিং তাই এখানে ভালবাসার গভীরতা কম থাকাই ভাল।

তাহলে কিভাবে প্রথম ডেটিং করবেন?

সবশেষে বলছি, প্রথম ডেটিং অনেক মজার, আগ্রহের আর সৃতিময়। তাই এই ডেটিং সময়কে উপভোগ্য করে তোলার ক্ষত্রে দুজনের সমানভাবে এগিয়ে আসা উচিত। ভুলেও প্রেমের চুড়ান্ত পর্যায়ে যাবেন না। তাহলে আপনি নিচুস্তরে পড়ে যাবেন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 93 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ