কি কারণে মেলানিয়ার হাত ধরেন না ট্রাম্প

Print

অভিষেক অনুষ্ঠান থেকে শুরু করে বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে দেখা যায় তার স্ত্রী মেলানিয়ার হাত ধরেন না বা ধরলেও সেটা খুব অল্প সময়ের জন্য। অভিষেক অনুষ্ঠানের আগে বিদায়ী প্রেসিডেন্টকে ও তার পরিবারকে বিদায় জানাতে হোয়াইট হাউসে গিয়েছিলেন ট্রাম্প ও মেলানিয়া। সবাইকে অবাক করে দিয়ে দেখা গেলো ট্রাম্প মেলানিয়াকে গাড়িতে ফেলে এগিয়ে যান ওবামা দম্পতির কাছে।

সাধারণত স্বাভাবিক ভদ্রতা বা সৌজন্যবোধের জায়গা থেকে স্বামী-স্ত্রী একসাথেই যান কোনো অনুষ্ঠানে। আর হোয়াইট হাউসে তো ফার্স্ট লেডির অনানুষ্ঠানিক অনেক দায়িত্ব রয়েছে। বারাক ওবামা ও মিশেল ওবামা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সুখী রাজনৈতিক দম্পতি হিসেবে জায়গা পেয়েছিল বিশ্ব গণমাধ্যমে। এর আগে জর্জ ডব্লিউ বুশ ও লরা বুশও ছিলেন সুখী দম্পতির মুখচ্ছবি। অন্তত জনসমুক্ষে দুজন কাছাকাছি থাকা একটা পরিচিত দৃশ্য। সেটা বিল ক্লিন্টন ও হিলারি ক্লিন্টনও করেছেন।

কিন্তু ডোনাল্ড ট্রাম্প অন্য জগতের মানুষ। প্রথম থেকেই বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে মেলানিয়ার হাত থেকে দূরে থাকতে দেখা যায় ট্রাম্পকে! যেখানে বারাক ওবামা ও মিশেল ওবামাকে জনসমুক্ষে আলিঙ্গন, জড়িয়ে ধরা; অন্তত হাতে হাত রাখতে দেখা যায় সেখানে ট্রাম্পের এ আচরণ বিস্ময়ের সৃষ্টি করেছে বিভিন্ন মহলে। মনোবিজ্ঞানী ও আচরণবিদরা এর কারণ খুঁজে বের করার চেষ্টা করেছেন। বডি ল্যাঙ্গুয়েজ বিশেষজ্ঞ প্যাটি উড মনে করেন ট্রাম্পের এই হাত না ধরার অনীহা আসলে তার ‘প্রেসিডেন্টের আলফা’ আকাঙ্খার প্রকাশ।
শারীরিক অঙ্গভঙ্গি বা বডি ল্যাঙ্গুয়েজ বিশেষজ্ঞ প্যাটি উড বলেন, ‘সাধারণত হাতে হাত রাখা মানে হচ্ছে দুজন মিলে একটি ইউনিট দেখানো। কিন্তু ট্রাম্প দেখাতে চাচ্ছেন- আমি নিজের কারণেই প্রেসিডেন্ট। আমি একাই ক্ষমতাধর ব্যক্তি। এটাকে মনোবিদরা আলফা পুরুষ বলেন।’

প্যাটি উড আরও বলেন, ‘হাতে হাত রাখা একজন ব্যক্তি বা যুগল সম্পর্কে অনেক বার্তা দেয়। কীভাবে হাত রাখে, কে হাত এগিয়ে দেয় এবং কে আগে হাত সরিয়ে ফেলে এটা ব্যক্তিত্ব নিয়ে অনেক কথা বলে।’
ডোনাল্ড ট্রাম্প বিভিন্ন পাবলিক অনুষ্ঠানে বেশিক্ষণ হাত ধরে রাখেন না মেলানিয়ার। মেলানিয়া হাত বাড়িয়ে দিলে কিছুক্ষণ রেখে হাত সরিয়ে ফেলেন ট্রাম্প।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 256 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ