কুপ্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় নৌকা টানিয়ে দোকান দখল

Print
আওয়ামী লীগ নেতার কুপ্রস্তাবে গৃহবধূ রাজী না হওয়ায় তার স্বামীর দোকান নৌকা টানিয়ে দোকান দখল করেছে তার লোকজন।

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার ঝিনা রেলগেট এলাকায় শনিবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে গৃহবধূ বাদি হয়ে ওই দিন রাতে বাঘা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযুক্ত তোজাম্মেল হক তোজাম আড়ানী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি সদস্য।

স্থানীয়রা জানান, আওয়ামী লীগ নেতা তোজাম ওই গৃহবধূকে কুপ্রস্তাব দেয়। এ ঘটনায় স্বামী প্রতিবাদ করলে তোজাম তার লোকজনকে নিয়ে তার চায়ের দোকানে নৌকা টানিয়ে দখল করে নেয়। এছাড়াও তাকে হুমকি ও তার বাড়িতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে ঘেরাও করে রাখে।

অভিযুক্ত তোজাম্মেল হক তোজাম বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, দোকান ঘরটি আওয়ামী লীগের ক্লাব ছিল। তার কাছে ভাড়া দেওয়া ছিল। সঠিকভাবে ভাড়া দিতে না পারায় তার কাছে থেকে (দখল) নিয়ে নৌকা টানিয়ে দেয়া হয়েছে।

আড়ানী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক শফিকুল ইসলাম নান্টু বলেন, এই ওয়ার্ডে একটি আওয়ামী লীগের ক্লাব আছে। তবে এইটি আদৌ আওয়ামী লীগের ক্লাব ছিল কিনা আমার জানা নেই।

আড়ানী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক রফিকুল ইসলাম বলেন, ওই দোকানদারের বাবা ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের প্রবীণ নেতা ছিলে। এক সময় দল করতে গিয়ে তিনি নিঃস্ব হয়ে পড়েন। এলাকার লোকজনকে সঙ্গে নিয়ে তাকে এই জায়গা দেওয়া হয়েছিল। এই জায়গাটি রেলওয়ের জমি। সেখানে একটি আধাপাকা ঘর তুলে চায়ের দোকান দিয়ে তিনি ব্যবসা করে আসছেন। তবে শুনেছি এই দোকান ঘর আওয়ামী লীগের লোকজন নৌকা টানিয়ে দখলে নিয়েছে।

বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ আলী মাহমুদ বলেন, এক গৃহবধূকে কুপ্রস্তাব ও দোকানঘর ভাংচুর এবং দখলের বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 –  যুগান্তর

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 143 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ