কেন্দুয়ায় স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত দুই গুণীজনকে সম্মাননা প্রদান

Print

মাঈনউদ্দিন সরকার রয়েল ঃ
স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার দুই কৃতী সন্তান গোলাম সামদানী কোরাইশী ও যতীন সরকারকে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। গতকাল শনিবার উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে কেন্দুয়া গুণীজন সম্মাননা পর্ষদ আয়োজিত সাহিত্য উৎসবে এ সম্মাননা প্রদান করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা সহকারি কমিশনার (ভূমি) কাজী মহুয়া মমতাজের সভাপতিত্বে ও কেন্দুয়া গুণীজন সম্মাননা পর্ষদের সদস্য সচিব সমরেন্দ্র বিশ্ব শর্মার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে গোলাম সামদানী কোরাইশীর ছেলে ইয়াজদানী কোরাইশী কাজলের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়। একই সময় যতীন সরকারের সম্মাননা ক্রেস্টও ইয়াজদানী কোরাইশী কাজলের হাতে তুলে দেওয়া হয়। সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে মোবাইল ফোনে বক্তব্য রাখেন, সম্মাননা প্রাপ্ত গুণীজন যতীন সরকার। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, আমার জন্মস্থান কেন্দুয়া উপজেলা রতœগর্ভা। এ উপজেলায় চন্দ্রকুমার দে, রওশন ইজদানী ও জালাল উদ্দিন খাসহ অসংখ্য গুণীজন জন্ম নিয়েছেন। তাই এ উপজেলায় জন্ম নিয়ে আমিও গর্বিত। যতীন সরকার আরো বলেন, যে চন্দ্রকুমার দে ময়মনসিংহ গীতিকা সংগ্রহ করে আমাদের বাংলাসাহিত্যকে উজ্জ্বল করেছেন, সেই চন্দ্রকুমারের বাড়িটিও আজ নেই। তাই তিনি চন্দ্রকুমার দে’র বসতবাড়ির জায়গা উদ্ধার করে তা সংরক্ষণের দাবী জানান।
এ সময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কবি শামসুল ফয়েজ, স্বপন ধর, স্বাধীন চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা বিমল পাল, কবি জেবুন্নেছা রীনা, ছড়াকার জাহাঙ্গীর আলম জাহান, ইতিহাসবিদ আলী আহাম্মদ খান আইয়োব, কেন্দুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম, লোকসাহিত্য সংগ্রাহক সন্তোষ সরকার, কেন্দুয়া গুণীজন সম্মাননা পর্ষদের আহবায়ক ফজলুর রহমান, কেন্দুয়া ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ রণেন সরকার ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ। সম্মাননা প্রদান ছাড়াও সাহিত্য উৎসবে স্থানীয় কবিরা কবিতাপাঠ করেন এবং শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় ও বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 136 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ