কেন ক্ষুব্ধ তবলিগ ও কওমি আলেমরা

Print

ভারতের দিল্লির নিজামুদ্দিনে তাবলিগ জামাতের মুরব্বি মাওলানা সাদ কান্ধলভির টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমায় আগমন ঠেকাতে গতকাল দিনভর রাজধানীর বিমানবন্দর মোড়সহ বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ করেছেন তাবলিগ জামাতের একাংশ ও কওমি আলেমরা। এর মধ্যেই গতকাল বেলা সাড়ে ১২টার দিকে থাই এয়ারওয়েজের টিজি-৩২১ ফাইটে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসেন মাওলানা সাদ কান্ধলভী। পরে পুলিশি নিরাপত্তায় তাকে কাকরাইলের মারকাজ মসজিদে নিয়ে যাওয়া হয়। তাবলিগের এ বিক্ষোভের কারণে গতকাল উত্তরাসহ আশপাশের সড়কগুলোতে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়। চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয় মানুষকে।
মাওলানা সাদ আসছেন এমন খবরে গতকাল সকাল থেকেই বিমানবন্দর এলাকায় অবস্থান নেন তাবলিগ জামায়াতের একটি অংশ ও কয়েক হাজার কওমি আলেম-ছাত্ররা। তারা ব্যানার নিয়ে বিমানবন্দর বাসস্ট্যান্ডে অবস্থান নিয়ে ব্যাপক বিক্ষোভ করেন। এ সময় ওই সড়কে যান চলাচল সীমিত হয়ে যায়। এর মধ্যে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে থাই এয়ারওয়েজের একটি ফাইটে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসেন মাওলানা সাদ কান্ধলভী। কিন্তু তিনি যাতে বের হতে না পারেন সেজন্য তাবলিগের হাজার হাজার সাথী ও কওমি আলেম-ছাত্ররা পুরো বিমানবন্দর এলাকা অবরোধ করে রাখেন।
তাবলিগকর্মী রুমি জানান, বিমানবন্দর থেকে ইজতেমা মাঠে যাওয়ার সব রাস্তায় প্রতিবাদ করছেন তাবলিগ কর্মীরা। এ কারণে বিমানবন্দরে এলেও তিনি দীর্ঘ সময় আটকে থাকেন। পরে আড়াইটার দিকে বিশেষ নিরাপত্তা দিয়ে পুলিশি পাহারায় তাকে কাকরাইলের দিকে নিয়ে যাওয়া হয়। বেলা সাড়ে ৩টায় তিনি কাকরাইল মারকাজ মসজিদে এসে পৌঁছান। তিনি আসার আগে থেকেই মসজিদের বাইরে কঠোর নিরাপত্তাব্যবস্থা গড়ে তোলা হয়। রমনা থানা পুলিশের পাশাপাশি কাকরাইল মসজিদের মূল ফটকের বাইরে অবস্থান নেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) ও ডিটেক্টিভ ব্রাঞ্চের (ডিবি) সদস্যরা। এ ছাড়া মসজিদ সংলগ্ন এলাকায়ও নিরাপত্তা জোরদার করা হয়।
জানা যায়, মসজিদের মূল ফটক দিয়ে সাধারণ মুসল্লি প্রবেশ করতে পারছেন না। শুধু ভেতরে অবস্থানরত মুসল্লিরা কাউকে পরিচিত মনে করলে তাকে ঢুকতে দিচ্ছেন। এ ছাড়া সাধারণ মুসল্লিদের মধ্যে অনেকেই মসজিদে যেতে পারেননি। গতকাল বিকেলে অন্তত অর্ধশত মুসল্লিকে মসজিদের বাইরে অপো করতে দেখা যায়।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 220 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ