কয়েদি নম্বর ১০৭১১

Print

আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পত্তি মামলায় জেলে গেলেন এআইএডিএমকে প্রধান ভি কে শশীকলা।

সুপ্রিম কোর্টে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর বুধবার ব্যাঙ্গালুরুর নিম্ন আদালতে তিনি আত্মসমর্পণ করলে, তাকে জেলে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক।

এবিপি আনন্দ জানায়, বুধবার সুপ্রিম কোর্টে আত্মসমর্পণের জন্য আরও ২ সপ্তাহ সময় চেয়ে আবেদন করেন শশীকলা। সেই আবেদন শীর্ষ আদালত খারিত করতেই ব্যাঙ্গালুরুতে বিশেষ বিচারক অশত্থনারায়ণের সামনে আত্মসমর্পণ করেন ৬০ বছরের নেত্রী।

চেন্নাইয়ের বিখ্যাত মেরিনা বিচে প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার স্মৃতিসৌধে পুষ্পার্ঘ্য দিয়ে সড়কপথে বেঙ্গালুরু পৌঁছন শশীকলা। তারপর সোজা কর্নাটক-তামিলনাড়ু সীমান্ত লাগোয়া হোসুরের ২৮ কিলোমিটার দূরে পরাপ্পনা আগ্রাহারায় সেন্ট্রাল জেলে যান তিনি।

জেলে পৌঁছনোর পর প্রথামাফিক তার মেডিক্যাল পরীক্ষা করা হয়। তারপর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় নির্দিষ্ট নারী সেলে। জানা গেছে, আগামী চার বছর শশীকলার পরিচয় হবে কয়েদি নম্বর ১০৭১১।

তার জন্য বিশেষ কোনও ব্যবস্থা হচ্ছে না। আরও ২ সহ-বন্দিনীর সঙ্গেই থাকতে হবে শশীকলাকে। এমনকী, খেতে হবে জেলের খাবারই। কারণ, বিচারক বাড়ির খাবার আনার অনুমতি দেননি।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 127 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ