খারাপ খেললেই বাদ পড়বে

Print

সাকিব-তামিম-মুশফিক-মাহমুদউল্লাহ রিয়াদদের অনেক পছন্দ করেন বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন। তবুও গৌরবময় শততম টেস্টের দল থেকে বাদ দেয়া হলো মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে। সাকিব-তামিম-মুশফিদের মতো রিয়াদকেও দলের অন্যতম স্তম্ভ ভাবা হতো, সেই স্তম্ভকেই ছেঁটে ফেলা হলো শততম টেস্টের আগে! বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন রিয়াদের বাদ পড়ার প্রসঙ্গ টেনে এনে কঠোর হুঁশিয়ারি জানিয়ে দিলেন, যত বড় অপরিহার্য ক্রিকেটারই হোক না কেন, খারাপ খেললেই তাকে বাদ দেয়া হবে।
কলম্বোর পি সারা ওভালে বাংলাদেশ-শ্রীলংকা সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনের খেলা চলাকালেই সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন বিসিবি প্রেসিডেন্ট। সেখানেই রিয়াদের বাদ পড়া প্রসঙ্গে পাপন বলেন, ‘সন্দেহ নেই রিয়াদ অত্যন্ত ভালো পারফরমার এবং তামিম-সাকিব-মুশফিকের মত আমাদের দলের অন্যতম স্তম্ভ; কিন্তু ফর্ম যদি না থাকে, কেই যদি খারাপ খেলতে থাকে- শুধু স্তম্ভ বলে তাকে দলে রাখা কী ঠিক? আমি মোটেই তা ঠিক মনে করি না। আমার বার্তা পরিস্কার, যত বড় এবং অপরিহার্য খেলোয়াড়ই হোক না কেন, খারাপ খেললে তাকে বাদ পড়তেই হবে।’

শুধু বাদ পড়াই নয়, এখানে আরও একটি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন পাপন। জানিয়ে দেন, ‘এই বাদ পড়া নিয়ে যদি কারও মন খারাপের কথা ওঠে এবং সেটা দলের অভ্যন্তরে ক্ষতির কারণ হয়, তা কিছুতেই বরদাস্ত করা হবে না।’
এ সময় পাপন আরও একটি গুরুতর তথ্য জানান। তিনি জানিয়ে দেন, শুধু মুমিনুলই নয়, আরও একজন বড়মাপের ক্রিকেটারকেও নাকি বাদ দেয়ার পরিকল্পনা হচ্ছিল। তিনিই সেটা বন্ধ করেছেন। পাপন বলেন, ‘শুধু মুমিনুল হকই নয়, এই টেস্টে আরও বড় ধরনের পরিবর্তনের চিন্তা-ভাবনা চলছিল। আমি এসে শেষ পর্যন্ত তা বন্ধ করেছি। এখন আমার শেষ কথা হলো, কেউই দলে সব সময় অপরিহার্য নয়। খারাপ খেললে তাকে বাদ পড়তেই হবে। এই বাদ পড়াটা সবার জন্যই সমান।’
পাপনের কথায় পরিস্কার হয়ে গেলো, কলম্বোয় শততম টেস্টেই বড় কেউ একজনের বাদ পড়ার সম্ভাবনা ছিল। তিনি কে? পাপনের কথা শোনার পর এটা নিয়েই নানা জ্বল্পনা-কল্পনা, গুঞ্জন। তবে হাবভাবে মনে হলো, সাকিব-তামিমের কারো একজনের প্রতি হয়তো সেই ইঙ্গিতের তির বিসিবি বিগ বসের।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 80 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ