খালেদা জিয়ার হাতে পাঁচ নাম, জমা আজ

Print
নির্বাচন কমিশন নিয়ে দুই দলের ভাবনা খালেদা জিয়ার হাতে পাঁচ নাম, জমা আজ
খালেদা জিয়ার হাতে পাঁচ নাম, জমা আজ

সার্চ কমিটি নিয়ে নিজেদের দাবি না মানা হলেও নতুন সিইসি ও নির্বাচন কমিশনার নিয়োগে নামের প্রস্তাব পাঠাবে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোট। এ নিয়ে দলের স্থায়ী কমিটি ও জোটের শীর্ষ নেতাদের মতামত নেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। পাঁচজনের নামের তালিকাও চূড়ান্ত করা হয়েছে। আজ বিকাল ৩টার আগে নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই নামের তালিকা মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিবের (প্রশাসন ও বিধি) কাছে জমা দেবে বিএনপি। জানা যায়, নামের ক্ষেত্রে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) হিসেবে একজন দল নিরপেক্ষ শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিকে সুপারিশ করেছে বিএনপি। চার সদস্যের নির্বাচন কমিশনে একজন নারী সদস্যের নামও বিএনপির তালিকায় রয়েছে। এক্ষেত্রেও বিতর্কিত নন এমন একজন নারী সদস্যের নামের সুপারিশ করা হয়েছে। সিইসি হিসেবে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান হিসেবে অধিষ্ঠিত ছিলেন এমন একজন ব্যক্তিকে সুপারিশ করা হয়েছে। চার কমিশনার হিসেবে অবসরপ্রাপ্ত বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তা, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদমর্যাদার অবসরপ্রাপ্ত সামরিক কর্মকর্তা, ন্যূনতম যুগ্ম সচিব পদমর্যাদার অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা, সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী, প্রশাসনিক অভিজ্ঞতাসম্পন্ন শিক্ষাবিদ ও সর্বজন শ্রদ্ধেয় বিশিষ্ট নাগরিককে বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে।

এ নিয়ে রবিবার রাতে দলের স্থায়ী কমিটির সঙ্গে বৈঠক করেন বেগম জিয়া। গতকাল ফের মুলতবি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকে বেগম জিয়া স্থায়ী কমিটির সদস্যদের কাছে পৃথকভাবে নামের তালিকা চান। চিরকুটে লেখে স্থায়ী কমিটির সদস্যরা নিজেদের পছন্দমতো ৫ সদস্যের নামের তালিকা দেন। পরে এ নিয়ে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে একান্তে বৈঠক করেন বিএনপি প্রধান। এর আগে গতকাল দুপুরে ২০-দলীয় জোটের মহাসচিব পর্যায়েও বৈঠক করেন মির্জা ফখরুল। তাদের কাছ থেকেও এ নিয়ে পৃথক মতামত নেওয়া হয়। রাতে দলের প্রধানের সঙ্গে বৈঠক করে চূড়ান্ত তালিকা তৈরি করেন মির্জা ফখরুল। জানা যায়, আজ দলের একটি প্রতিনিধি দল সংশ্লিষ্ট দফতরে গিয়ে তালিকা হস্তান্তর করবে।

গতকাল নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ২০-দলীয় জোটের মহাসচিবদের বৈঠকের পর এলডিপি মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘সার্চ কমিটির কাছে নাম পাঠানোর ব্যাপারে আমরা ঐকমত্যে পৌঁছেছি। আমরা নাম পাঠাচ্ছি। কার কী নাম কখন কীভাবে যাবে, তার সিদ্ধান্ত হবে আজকে রাতে। ’

এদিকে বিএনপি  নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয়  জোটের শরিক ছয়টি দল রাষ্ট্রপতির সংলাপের আমন্ত্রণ পেয়েছিল। এই দলগুলো হচ্ছে— বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি-বিজেপি, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি, খেলাফত মজলিস, বাংলাদেশ ন্যাপ, মুসলিম লীগ ও জমিয়তে উলামা-ই ইসলাম। সব দল আলাদাভাবে সার্চ কমিটির কাছে ইসি গঠনে নাম প্রস্তাব করছে।

ফখরুলের সঙ্গে বৈঠকে এলডিপির রেদোয়ান আহমেদ ছাড়াও জামায়াতে ইসলামীর মঞ্জুরুল ইসলাম ভুঁইয়া,  খেলাফত মজলিসের আহমেদ আবদুল কাদের, ন্যাপের  গোলাম  মোস্তফা ভুঁইয়া, লেবার পার্টির হামদুল্লাহ আল  মেহেদি, বিজেপির সালাহউদ্দিন মতিন, ইসলামী ঐক্যজোটের আবদুল করীম খান, কল্যাণ পার্টির এম এম আমিনুর রহমান, এনপিপির মোস্তাফিজুর রহমান  মোস্তফা, মুসলিম লীগের শেখ জুলফিকার বুলবুল  চৌধুরী, জমিয়তে উলামা-ই ইসলামের মাওলানা মহিউদ্দিন একরাম, জাগপার খন্দকার আসাদুর রহমান খান, ইসলামিক পার্টির আবুল কাশেম, পিপলস লীগের সৈয়দ মাহবুব হোসেন, সাম্যবাদী দলের সাঈদ আহমেদ, এনিডিপির মঞ্জুর হোসেন ঈসা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকের শেষ পর্যায়ে এসে যুক্ত হন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ও। তবে বৈঠকের পর ফখরুল সাংবাদিকদের সঙ্গে কোনো কথা বলেননি।

এর আগে সার্চ কমিটি নাম চাওয়ার পর রবিবার রাতে গুলশানের কার্যালয়ে স্থায়ী কমিটির সদস?্যদের নিয়ে বৈঠক করেছিলেন খালেদা জিয়া। ওই বৈঠক গতকাল সন্ধ্যা যা পর্যন্ত মুলতবি ছিল। এ নিয়ে গতকালও স্থায়ী কমিটির নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন বেগম জিয়া

-বাংলাদেশ প্রতিদিন

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 84 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ