গুলশান পর্যন্ত অবস্থান নিয়ে খালেদা জিয়াকে অভ্যর্থনা

Print

দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে দেশে ফেরার দিন অভ্যর্থনা জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। এজন্য আগামী বুধবার (১৮ অক্টোবর) বিমানবন্দর থেকে গুলশান পর্যন্ত অবস্থান নেবে দল ও এর অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। এ লক্ষ্যে সার্বিক প্রস্তুতি নিতে দফায় দফায় বৈঠক করছে বিএনপি, অঙ্গ সহযোগী সংগঠনগুলো। দলীয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
তিন মাস লন্ডন সফর শেষে আগামী বুধবার দেশে ফিরছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এদিন বিকাল ৫টা ৪৫ মিনিটে তিনি এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছাবেন। বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

চলতি বছরের ১৬ জুলাই খালেদা জিয়া লন্ডন যান। সেখানে তার পা, হাঁটু ও চোখের চিকিৎসা করানো হয় বলে দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।
ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ বলেন, ‘চেয়ারপারসনকে অভ্যর্থনা জানাতে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করছি। তার দেশে ফেরা উপলক্ষে নেতাকর্মীদের মধ্যে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। আমাদের পক্ষ থেকে লক্ষাধিক লোকের সমাগম ঘটানোর প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।’ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার বলেন,‘মহানগরের বিভিন্ন থানা ও ওয়ার্ডের নেতাকর্মীরা নেত্রীকে অভ্যর্থনা জানাতে প্রস্তুত রয়েছে। আমার বিমানবন্দর থেকে গুলশান পর্যন্ত জনস্রোত তৈরি করতে প্রস্তুতি নিচ্ছি।’
বিমানবন্দরে খালেদা জিয়াকে অভ্যর্থনা জানাতে উপস্থিত থাকবেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা। এর বাইরে বিমানবন্দরে বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবী,শিক্ষক,শিল্পীরাও উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। বিমানবন্দর থেকে গুলশান-২-এ খালেদা জিয়ার বাসভবন ফিরোজা পর্যন্ত রাস্তার বাম পাশে উপস্থিত থাকবেন বিএনপি,যুবদল,স্বেচ্ছাসেবক দল, ছাত্রদলসহ দলটির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু বলেন, ‘নেত্রীর অভ্যর্থনা প্রস্তুতি সম্পর্কে আমরা আজকে বিভিন্ন থানা ও ওয়ার্ডের নেতাকর্মীদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছি। আশা করছি, সংগঠনের পক্ষ থেকে বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী সেদিন বিমানবন্দর থেকে গুলশান পর্যন্ত উপস্থিত থাকবে।’
ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান বলেন, ‘নেত্রীকে বরণ করতে আজ ও আগামীকালের মধ্যে আমাদের সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হবে।’
খালেদা জিয়ার অভ্যর্থনা উপলক্ষে বিভিন্ন ধরনের প্ল্যাকার্ড, ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টার তৈরি করছেন বিএনপি ও দলটির বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের। জানা গেছে, দেশে ফেরা উপলক্ষে নেত্রীকে শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি ব্যানার, ফেস্টুনে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নামে থাকা মামলা প্রত্যাহারেরও দাবি জানানো হবে। এ অভ্যর্থনা থেকে খালেদা জিয়াকে ‘গণতন্ত্রের সৈনিক’ উপাধি দেওয়া হতে পারে বলে জানা গেছে।
স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু বলেন, ‘স্বেচ্ছাসেবক দলের ব্যানার, পোস্টারে নেত্রীর বিরুদ্ধে জারি হওয়া গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রত্যাহার, নেত্রী ও তারেক রহমানের নামে সকল মামলা প্রত্যাহারের দাবি তুলে ধরা হবে। এর বাইরে আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে খালেদা জিয়াকে ‘গণতন্ত্রের সৈনিক’ উপাধিও দেওয়া হবে।’

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 104 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ