চট্টগ্রাম বোর্ডে প্রথম চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল

Print

চট্টগ্রাম বোর্ডে প্রথম চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় বন্দরনগরী চট্টগ্রামে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছে চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল। এবারসহ টানা ১২ বছর ধরে চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী এই স্কুলটি তাদের শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে।

 

এ বছর এই স্কুল থেকে ৪০২ জন পরীক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলো। এদের মধ্যে ৩৭৯ জন ছাত্রছাত্রী জিপিএ ৫ পেয়ে উর্ত্তীর্ণ হয়েছে। কেউ ফেল করেনি। পাশের হার শতভাগ।

 

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের ঘোষিত ফল অনুযায়ী প্রথমস্থানে রয়েছে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে কলেজিয়েট স্কুল। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে চট্টগ্রাম গভ: মুসলিম হাই স্কুল। এই স্কুলে ৪১৪ জনে ৩৩৮জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে, পাস শতভাগ। তৃতীয় স্থানে রয়েছে ডা.খাস্তগীর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। এই স্কুলে ৩১৯ জনে ২৮০ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে, পাসের হার শতভাগ।

 

এ ছাড়া চতুর্থ স্থানে নাসিরাবাদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়, পঞ্চম স্থানে বাওয়া স্কুল, ষষ্ঠ স্থানে চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, সপ্তম স্থানে রয়েছে ফৌজদারহাট ক্যাডেট কলেজ।

 

চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাহবুব হাসান বলেন, ‘মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা থাকায় কোন স্কুলকে বোর্ড সেরা ঘোষণা করা হয়নি। তবে ফলাফলের দিক থেকে প্রথম দ্বিতীয় স্থান নির্ধারিত হয়েছে। এই বছর চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডে পাশের হার এবং জিপিএ দুটোই বেড়েছে।’

 

চট্টগ্রাম বোর্ডে গত বারের তুলনায় ৭ দশমিক ৬৭ শতাংশ বেড়ে এ বছর পাসের হার দাঁড়িয়েছে ৯০ দশমিক ৪৪ শতাংশ। একইসঙ্গে বেড়েছে জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা।  এবছর এই বোর্ড থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭ হাজার ৬৬৬ জন শিক্ষার্থী।  আগের বার এ সংখ্যা ছিল ৭ হাজার ১১৬ জনে। চট্টগ্রাম বোর্ডে এবার পাসের হার ৯০ দশমিক ৪৪ শতাংশ। গত বার এ হার ছিল ৮২ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

 

এই বছর চট্টগ্রাম বোর্ডে ১ লাখ ১২ হাজার ৯৫৯ পরীক্ষার্থী অংশ নিয়েছিলো। এর মধ্যে নিয়মিত পরীক্ষার্থী ছিল ৯৮ হাজার ৭০৩ জন, অনিয়মিত ১৪ হাজার ১৮৫ জন এবং মানউন্নয়ন পরীক্ষার্থী ছিল ৭১জন। এ ছাড়া তিনটি বিভাগের মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগের পরীক্ষার্থীর ছিল ২৪ হাজার ৫৭১ জন। মানবিক বিভাগের ৩০ হাজার ৬৮৮ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষায় ৫৭ হাজার ৭০০ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে।

 

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 95 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ