চট্রগ্রাম বিভাগে আগামী নির্বাচনে যে তরুনেরা এমপি প্রার্থীর দৌড়ে এগিয়ে

Print

চট্রগ্রাম বিভাগে আগামী নির্বাচনে যে তরুনেরা এমপি প্রার্থীর দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেনঃ
জে জাহেদ নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে দেশের অন্যান্য অঞ্চলের মত চট্টগ্রামেও উৎসাহ উদ্দীপনার শেষ নেই। ইতিমধ্যে নানা কর্মসুচীতে নেমে পড়েছে সম্ভাব্য প্রার্থীরা। নিয়মিত যোগ দিচ্ছেন সামাজিক অনুষ্ঠানে। জনসম্পৃক্ততা বাড়িয়ে দিয়েছেন তারা। জনসাধারনকে নিজের দিকে টানতে নিয়েছেন নানা কৌশল। ধর্নাট্যদের অনেকে দিচ্ছেন উপহার সামগ্রী, কাপড় চোপড় ও আর্থিক সহযোগীতা। গেল ঈদের আগে থেকে শুরু হওয়া এ তৎপরতা মধ্য আষাড়েও ভাটা পড়েনি। এতে দলের বর্তমান সংসদ সদস্য ছাড়াও আছেন বেশকিছু নতুন মুখ। যাদের মধ্যে রয়েছেন বেশ কয়েকজন সম্ভাব্য তরুন প্রার্থী।
চট্টগ্রামে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য সংসদ সদস্য প্রার্থীর তালিকায় প্রথমবারের উঠে এসেছে সাংবাদিক ও পেশাজীবী নেতা রিয়াজ হায়দার চৌধুরী। তবে আওয়ামী লীগের বর্তমান সংসদ সদস্য ছাড়াও সম্ভাব্য অনেকের নাম আসছে আলোচনায়। আবার আলোচনায় আছেন আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট একক প্রার্থীর নাম।
তাদের মধ্যে চট্টগ্রাম-১ (মিরসরাই) বর্তমান এমপি ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) সাবেক এমপি রফিকুল আনোয়ারের মেয়ে উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ নেতা খাদিজাতুল আনোয়ার সনি, এটিএম পেয়ারুল ইসলাম, জোটের বর্তমান এমপি নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী, চট্টগ্রাম-৩ (সন্দ্বীপ) বর্তমান এমপি মাহফুজুর রহমান মিতা, উপজেলা চেয়ারম্যান মাষ্টার শাহজাহান, পৌর মেয়র জাফর উল্লাহ টিটু, চট্টগ্রাম-৪ (সীতাকুন্ড) বর্তমান এমপি দিদারুল আলম, উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল মামুন, চট্টগ্রাম-৫ (হাটহাজারী) চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম.এ সালাম, ইউনুচ গনি চৌধুরী, জোটের বর্তমান এমপি ব্যারিষ্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ ।
চট্টগ্রাম-৬ (রাউজান) বর্তমান এমপি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী, যুবলীগের সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরী, মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন, চট্টগ্রাম-৭ (রাঙ্গুনিয়া) ড. হাসান মাহমদু, উপজেলা চেয়ারম্যান আলী শাহ, চট্টগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী) দক্ষিন জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমদ, আবুল কালাম, জোটের বর্তমান এমপি মইন উদ্দিন খান বাদল, চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালী), কেন্দ্রীয় নেতা মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, সাংবাদিক ও পেশাজীবী নেতা রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, জোটের বর্তমান এমপি জিয়াউদ্দিন বাবলু, চট্টগ্রাম-১০ (ডবলমুরিং) বর্তমান এমপি ডা. আফসারুল আমীন, সাইফুদ্দিন খালেদ বাহার।
চট্টগ্রাম-১১ (পতেঙ্গা-হালিশহর) বর্তমান এমপি এম.এ লতিফ, নগর আওয়ামী লীগ নেতা খোরশেদ আলম সুজন, চট্টগ্রাম-১২(পটিয়া) বর্তমান এমপি সামশুল হক চৌধুরী, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা বদিউল আলম, আওয়ামী লীগ নেতা মোতাহেরুল ইসলাম, চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা) বর্তমান এমপি সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, আনিসুজ্জমান চৌধুরী রণি, চট্টগ্রাম-১৪ (চন্দনাইশ) বর্তমান এমপি নজরুল ইসলাম চৌধুরী, ব্যারিস্টার ইমতিয়াজ উদ্দিন আহমদ আসিফ, মফিজুর রহমান।
চট্টগ্রাম-১৫ (সাতকানিয়া) বর্তমান এমপি আবু রেজা মো: নদভী, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ উপ প্রচার সম্পাদক আমিনুর ইসলাম, চট্টগ্রাম-১৬ (বাঁশখালী) বর্তমান এমপি মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা খোরশেদ আলম, চৌধুরী মো: গালিব, শিল্পপতি মুজিবুর রহমান সিআইপি, আব্দুল্লাহ কবির লিটন এবং জোট নেতা মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী আছেন আলোচনায়।
অপরদিকে বিএনপি রাজনীতিতে কিছুটা শৈতল্য অবলম্বন করলেও তলে তলে চলছে নির্বাচনি প্রস্তুতি। আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে হারাতে শক্তিশালী প্রার্থী খোঁজা হচ্ছে প্রতিটি আসনে। সিনিয়র নেতাদের মতে আওয়ামী লীগকে আর খালি মাঠে গোল দিতে দেওয়া হবে না। যে কোন মুল্যে নির্বাচনে যেতে যায় বিএনপি।
ইতিমধ্যে চট্টগ্রামের বিভিন্ন আসনের প্রার্থী তালিকা অনেকটা চড়ুান্ত করেছে দলটি –
যাদের মধ্যে চট্টগ্রাম-১ (মিরসরাই) কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য শিল্পপতি এমডি এম কামাল উদ্দিন, সাবেক এমপি এম.এ জিন্নাহ, বেগম খালেদা জিয়া, চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর স্ত্রী ফারহাত কাদের চৌধুরী, চট্টগ্রাম-৩ (সন্দ্বীপ) সাবেক এমপি মোস্তফা কামাল পাশা, যুবদল নেতা সাখাওয়াত হোসেন শওকত, চটগ্রাম-৪ (সীতাকুন্ড) কেন্দ্রীয় যুগ্ন মহাসচিব আসলাম চৌধুরী, চট্টগ্রাম-৫ (হাটহাজারী) দলের ভাইস চেয়ারম্যান মীর মো: নাছির উদ্দিন, সৈয়দ ওয়াহিদুল আলম ও ব্যারিষ্টার শাকিলা ফারজানা।
চট্টগ্রাম-৬ (রাউজান) গিয়াস কাদের চৌধুরী, গোলাম আকবর খন্দকার, চট্টগ্রাম-৭ (রাঙ্গুনিয়া) সালাউদ্দিন কাদেরের পুত্র হুম্মাম কাদের চৌধুরী, চট্টগ্রাম-৮ ( বোয়ালখালী) দলের ভাইস চেয়ারম্যান মোরশেদ খান, এরশাহ উল্লাহ, নগর সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান, চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালী) নির্বাহী সদস্য শামসুল আলম, নগর সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন, চট্টগ্রাম-১০ (ডবলমুরিং) দলের ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, চট্টগ্রাম-১১ (বন্দর ) স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।
চট্টগ্রাম-১২ (পটিয়া) এনামুল হক, ইদ্রিস মিয়া, সাবেক এমপি শাহজাহান জুয়েল, চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা) সরওয়ার জামাল নিজাম, দক্ষিন জেলা বিএনপির সিনিয়র সভাপতি আলী আব্বাস,এডভোকেট কবির চৌধুরী, চট্টগ্রাম-১৪ (চন্দনাইশ) জোট নেতা কর্ণেল অব: অলি আহমদ, অথবা দলের ড. মহশিন জিল্লুর রহমান, চট্টগ্রাম-(সাতকানিয়া) জোট নেতা শাহজাহান চৌধুরী, শেখ মো: মহিউদ্দিন, চট্টগ্রাম-১৬ (বাঁশখালী) জাফরুল ইসলাম চৌধুরী।
মহেশখালি কুতুবদিয়–া (কক্সবাজার-২) আসনে আওয়ামী দলীয় আলোচিত প্রার্থী সাবেক ছাত্রনেতা ও ধলঘাটার বর্তমান চেয়ারম্যান কামরুল হাসান, বর্তমান এমপি আশেক উল্লাহ রফিক,বিএনপি হতে এটিএম নুরুল বশর,জামাত সমর্থক হামিদুর রহমান আজাদ,পৌর মেয়র মকুসদ,জাতীয়পার্টি হতে মহিবুল্লাহ। তবে নানা গোয়েন্দা জরিপে কামরুল হাসান এগিয়ে বলে বিশেষ সুত্রে জানা যায়।
আওয়ামী লীগের আলোচিত তরুন মুখ –
মহিউদ্দিন চৌধুরীর পুত্র কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিষ্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, নুরুল ইসলাম বিএসসির পুত্র মো: মুজিবুর রহমান, সাংবাদিক ও পেশাজীবী নেতা রিয়াজ হায়দার চৌধুরী,সাবেক এমপি এডভোকেট সুলতানুল কবির চৌধুরীর পুত্র দক্ষিন জেলা সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা চৌধুরী গালিব, আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবুর ভাগিনা আব্দুল্লাহ কবির চৌধুরী, শিল্পপতি মুজিবুর রহমান সিআইপি,সাবেক ছাত্রনেতা ও বর্তমান চেয়ারম্যান কামরুল হাসান, ব্যারিষ্টার এস.এম আজিম দোলন, দক্ষিন জেলা আ.লীগের সাধারন সম্পাদক মফিজুর রহমান।
সাবেক ছাত্রলীগ- নেতা কেন্দ্রীয় আ.লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক নেতা মাঈনুদ্দিন হাসান, মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন, এস.আলম গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান আবদুস সালাম লাবু, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা বদিউল আলম. আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর এম.এ আজিজের পুত্র সাইফুদ্দিন খালেদ বাহার, জহুর আহমেদ চৌধুরীর পুত্র জসিম উদ্দিন, রফিকুল আনোয়ারের মেয়ে খাদিজাতুল আনোয়ার সনি প্রমুকের নাম ঘুরে ফিরে বেশ আলেচিত হচ্ছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 1251 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ