ছবি আপলোডের কথা স্বীকার করলেন সানি

Print

স্ত্রী দাবি করা তরুণী নাসরিন সুলতানার কিছু ব্যক্তিগত ছবি নিজের মোবাইল ফোন থেকে আপলোড হওয়ার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন ক্রিকেটার আরাফাত সানি।
তবে সানির দাবি, প্রযুক্তির মাধ্যমে অন্য কেউ তার ফোন ব্যবহার করে এই কাজ করেছেন বলে জানিয়েছেন তেজগাঁও অপরাধ বিভাগের ডিসি বিপ্লব কুমার সরকার।

ওই তরুণীকে সানি বিয়ে করেছিলেন কি না তা নিশ্চিত হতে পুলিশ তদন্ত চালিয়ে গেলেও বিয়ের কথা অস্বীকার করেছেন সানি।
রাজধানীর মোহাম্মদপুর কাঁটাসুরের নাসরিন সুলতানা থানায় এসে অভিযোগ করেন, জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানি তাকে বিয়ে করলেও স্ত্রীর মর্যাদা দিচ্ছেন না। ফেসবুক মেসেঞ্জারে তার ব্যক্তিগত ছবি পাঠিয়ে তা জনসমক্ষে প্রকাশ করার হুমকিও দিচ্ছেন।
নাসরিনের দায়ের করা আইসিটি অ্যাক্টের মামলায় গ্রেফতারের পর একদিনের রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় আরাফাত সানিকে। নিজেকে নির্দোষ দাবি করে সানি দাবি করেন, প্রযুক্তির মারপ্যাঁচে তার কোন শত্রু ছবিগুলো আপলোড করে থাকতে পারে।
আরাফাত সানির সঙ্গে বিয়ের সমর্থনে কাবিননামার সার্টিফাইড কপিও জমা দেন নাসরিন। কিন্তু, আদালতেই কাবিননামার সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন সানির আইনজীবা।
রিমান্ড শেষে সানি এখন কারাগারে। সানির বিরুদ্ধে যৌতুকের দাবিতে নির্যাতনের অভিযোগ এনে আদালতে আরেকটি মামলা করেছেন নাসরিন সুলতানা।
ওই মামলায় সানিকে আদালতে হাজির করতে কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 207 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ