ছেলের বানানো ওষুধ খেয়ে মায়ের মৃত্যু

Print

আয়ুর্বেদিক চিকিৎসক মো. তানজিব উল্লাহ ওষুধ বানিয়ে নিজে খেয়েছিলেন, অসুস্থ মাকেও খাইয়েছিলেন বৃহস্পতিবার। দুপুরের দিকে মা মারা যান। আর চিকিৎসক নিজে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বাচ্চু মিয়া এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

চিকিৎসকের মায়ের নাম ফয়জুন নাহার (৬৫)। তিনি ছেলের সঙ্গে মিরপুর ১৪ নম্বরে থাকতেন। বাড়ির পাশেই চেম্বারে রোগী দেখেন মো. তানজিব উল্লাহ। তিনি মিরপুর আয়ুর্বেদিক মেডিকেল কলেজ থেকে পাস করেছেন।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তানজিব প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর মা যকৃৎ ও পেটের পীড়ায় ভুগছিলেন। তাঁর হজমের সমস্যাও ছিল। সে কারণে তিনি ওষুধ তৈরি করে নিজে খান ও তাঁর মাকে খাওয়ান। ওষুধ খাওয়ার পর থেকে তাঁরা দুজনই অস্বস্তি বোধ করতে থাকেন। তিনি মনে করছেন, ওষুধে জাফরানের পরিমাণ বেশি হয়ে যাওয়ায় এমনটি হয়েছে।
সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকেরা ফয়জুন নাহারকে মৃত ঘোষণা করেন। চিকিৎসকের পাকস্থলী পরিষ্কার করেছেন জরুরি বিভাগের চিকিৎসকেরা। ফয়জুন নাহারের লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে রয়েছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 80 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ