জানুন, শীতে সরিষার তেল কতটা উপকারী!

Print

আগের যুগের দাদি-নানিরা ত্বকের যত্নে সরিষার তেল ব্যবহার করতেন। বর্তমানে এই তেল শুধু রান্নার কাজে ব্যবহার করা হলেও রূপচর্চায় এর গুণাগুণ কোনো অংশে কম নয়। এই শীতে রুক্ষ ও শুষ্ক ত্বক, ঠোঁট এবং চুলের যত্নে আপনি ব্যবহার করতে পারেন সরিষার তেল। এই তেল কী কী উপকার করে এবং কীভাবে ব্যবহার করবেন, এ বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়ার রূপচর্চা বিভাগ। চলুন, একনজর দেখে নেওয়া যাক।

১. ত্বককে আরো উজ্জ্বল করতে

বাঙালিদের মধ্যে, বিশেষ করে গ্রামে গোসলের আগে পুরো শরীরে সরিষার তেল মালিশ করা খুবই সাধারণ একটি রূপচর্চার পদ্ধতি ছিল। তাই গোসলের আগে শীতে ফাটা ও তুলনামূলকভাবে শুষ্ক স্থানগুলোতে এই তেল ম্যাসাজ করে নিতে পারেন। ত্বকের কালচে ভাব দূর করতে সরিষার তেলের সঙ্গে মেশান বেসন, টক দই ও লেবুর রস—যা আপনি বডি প্যাক হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন।

২. ত্বকের রুক্ষতা দূর করতে

অতিরিক্ত রুক্ষ ত্বক শীতের অন্যতম সমস্যা, যা আপনার সৌন্দর্য ও ব্যক্তিত্বকে নষ্ট করে। তাই এ সমস্যা সমাধানে কয়েক ফোঁটা সরিষার তেল নিয়ে পুরো মুখে মালিশ করে নিন। কিছুক্ষণ রেখে পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এটি ব্যবহারের পর মেকআপ বা ফাউন্ডেশন লাগানোর জন্য আপনার ত্বক পুরোপুরি প্রস্তুত।

৩. চুলকে স্বাস্থ্যোজ্বল রাখতে

শীতে নিয়মিত চুলে সরিষার তেল ব্যবহার করলে খুশকি, তালুর সমস্যা ও চুল পড়া রোধ করা সহজ হবে। সরিষার তেল হালকা গরম করে চুলে ব্যবহার করুন এবং মাইল্ড শ্যাম্পু ব্যবহার করে চুল ধুয়ে নিন। এতে চুল থাকবে স্বাস্থ্যোজ্বল ও ঝলমলে।

৪. ঠোঁটকে কোমল ও মসৃণ রাখতে

ফাটা শুষ্ক ঠোঁট আপনার সৌন্দর্যে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে। তাই ঠোঁটের যত্নে প্রতি রাতে লিপ বামের পরিবর্তে কয়েক ফোঁটা সরিষা তেল ব্যবহার করুন। সকালে উঠে আপনি পেয়ে যাবেন বেবি সফট লিপ।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 107 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ