ঝালকাঠিতে ২ ফেব্রুয়ারি থেকে তিনদিন ব্যাপী আয়োজিত জেলা ইস্তেমা

Print

দীনে ও দাওয়াতের অংশ দক্ষিনাঞ্চলের এই প্রথম
ঝালকাঠিতে ২ ফেব্রুয়ারি থেকে তিনদিন ব্যাপী আয়োজিত জেলা ইস্তেমার সকল প্রস্তুতি চুড়ান্ত


আজমীর হোসেন তালুকদার, ঝালকাঠি:: মুসলিম ধর্মাবলম্বিদের দীন ও দাওয়াতের অংশ হিসাবে দক্ষিনাঞ্চলের মধ্যে এই প্রথম ঝালকাঠিতে জেলা সদরে আয়োজিত তিনদিন ব্যাপী ইস্তেমা অনুষ্ঠানের সকল প্রস্তুতি চুরান্ত করা হয়েছে। শহরের পুরাতন স্টেডিয়াম ময়দানে আগামী ২ ফেব্রুয়ারি থেকে তিনদিন ব্যাপী শুরু হওয়া ইস্তেমা আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি শেষ হবে। ঝালকাঠিতে তিনদিন ব্যাপি জেলা ইজতেমা কে কেন্দ্র করে পুরাতন স্টেডিয়ামে সব ধরণের আয়োজন প্রায় সম্পন্ন হয়েছে। ইস্তেমায় অংশ নেয়া দেশী-বিদেশী ধর্মপ্রান মুসুল্লীদের নিরাপত্তায় আইন শৃংখলা রক্ষাকারী জেলা পুলিশ বিভাগ বিশেষ প্রস্তুতি নিয়েছে বলে ঝালকাঠির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এমএম মাহমুদ হাসান পিপিএম জানিয়েছেন।
আগামী ২ ফেব্রুয়ারি আছরবাদ আম বয়ানের মাধ্যমে শুরু হবে ঝালকাঠি জেলা ইজতেমা। ইজতেমা ময়দানে প্রায় ২০ থেকে ২৫ হাজার লোকের স্থান সংকুলন হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। তবে আয়োজকদের ধারণা জেলা পর্যায়ে প্রথম বারের মতো আয়োজিত এ ইস্তেমাকে কেন্দ্র করে ঝালকাঠি শহরে প্রায় ৫০ হাজারেরও বেশি লোকের সমাগম হবে। এখন মাঠ প্রস্তুতি, আলোকসজ্বা, পানি সরবরাহ ও পয়নিস্কাশন সহ অন্যান্য সব আয়োজন প্রায় চুরান্ত পর্যায় রয়েছে। বিপুল সংখ্যক ধর্মপ্রান মুসলমানদের অংশগ্রহনে আয়োজিত তিন শতাধিক তবলিক জামায়াতের সদস্যরা রাত দিন কাজ করছেন। ঝালকাঠি পৌরসভার পক্ষ থেকে পানি-বিদ্যুত সরবারাহসহ বিভিন্ন ভাবে সহায়তা করা হচ্ছে বলে বলে জনাগেছে।
এদিকে মরোক্ক, জর্ডান, ইন্দোনেশিয়া, হাইতিসহ ৫টি বৈদিশী তাবলীগ জামায়াতের বেশকিছু সংখ্যক বিদেশী নাগরিক এ ইস্তেমায় অংশ নিচ্ছেন বলে নিশ্চিত করা হয়েছে। সেই সাথে সারা দেশ থেকে আগত মুসুল্লীরা দুনিয়া ও আখেরাতে ফসালা পেতে এই ইস্তেমায় শরিক হবেন। তাছাড়া সরকারের একাধিক মন্ত্রী, উর্ধতন সরকারী কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি সহ সর্বস্থরের মুসলমানদের অংশগ্রহনে এ ইস্তেমার সার্বিক সহযোগীতায় জেলাপ্রশাসন সহ সকলেই সার্বিক সহযোগীতা করবেন বলে জানাগেছে। আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি সকালে আখেরী মোনাজাতের মধ্যদিয়ে ঝালকাঠির জেলার ঐতিহাসিক এ ইজতেমা সমাপ্ত হবে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 135 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ