ঝিকরগাছার পোদাউলিয়া গ্রামবাসীর স্বপ্নের দাবী পাকা রাস্তার কাজ শুরু হয়েছে

Print

আরিফুজ্জামান আরিফ,ঝিকরগাছা প্রতিনিধি উপজেলার পোদাউলিয়া গ্রামবাসীর স্ব উদ্দোগে কাচা রাস্তায় ইট বিছানো সেই ইটের রাস্তাটি অবশেষে পাকা করার কাজ শুরু হয়েছে; যার অভাবে বিলের ওপারে বিচ্ছিন্ন হয়ে ছিল পোদাউলিয়া নামের একটি গ্রাম।
জানা যায় দীর্ঘদিনেও সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে না পেরে বছর দেড়েক আগে গ্রামবাসী নিজেরাই কাঁচা রাস্তায় ইট বিছায়ে গ্রামবাসী চলাচল করত।

সে খবর একটি জাতীয় সংবাদ সংস্হায় প্রকাশিত হলে সরকার রাস্তাটি পাকা কারার উদ্যোগ নেয় বলে গ্রামবাসীরা জানিয়েছে।
ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদ প্রকৌশলী আব্দুস সালাম জানান,এ বছর রাস্তাটি পাকা করার কাজ শুরু হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ইটের সলিংয়ের ওপর সিমেন্টের ব্লক বসানো হচ্ছে। বর্ষার আগেই কার্পেটিংয়ের কাজ শেষ হবে।
পাকা রাস্তা পেয়ে গ্রামবাসী আজ মহাখুশি।

যেন তাদের স্বপ্ন আজ বাস্তবায়নের দোর গোড়ায়।গ্রামের বাসিন্দা সাবেক মেম্বর ও বিশিষ্ট আওয়ামীলীগ নেতা জাহান আলী সরদার বলেন, গ্রামের পাঁচ হাজার লোক একটি রাস্তার অভাবে সব সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত ছিল। এখানে একটি মাদ্রাসা, একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চারটি মসজিদ, দুটি মাদ্রাসা সহ অনেক বড় ছোট দোকান ঘর আছে গ্রামটিতে।
গ্রামের মাতব্বর ৬৭ বছর বয়সী নূর ইসলাম মোড়ল পাকা রাস্তার কাজ শুরু হওয়ায় আজ আমরা গর্বিত ও উচ্ছ্বসিত।পাশাপাশি বর্তমান সরকারকে আমরা ধন্যবাদ জানাই।

দীর্ঘ প্রায় ৬০ বছর ধরে এই রাস্তাটা কাঁচা দেখে আসছি। বর্ষায় গ্রামের ছেলেমেয়েরা কাদা চটকিয়ে পাঁচ-ছয় কিলোমিটার দূরে গিয়ে লেখাপড়া করেছে। মেয়েরা শিক্ষিত হলেও গ্রামের রাস্তা ভালো না হওয়ায় ভালো জায়গায় বিয়েসাদি দিতে পারতাম না।
পোদাউলিয়া ঝিকরগাছার একটি অন্যতম প্রধান শস্যভাণ্ডার বলে মনে করেন ওই গ্রামের আব্দুল গনি।তিনি বলেন, “পরিপূর্ণ একটি সমৃদ্ধ গ্রাম পোদাউলিয়া। কিন্তু রাস্তার অভাবে আমরা আমাদের ফসল বাজারজাত করতে পারতাম না।”ফলে আমরা নানামূখী সমাস্যায় পড়তে হত আমাদের উৎপাদিত পন্য বাজারজাত করণে।রাস্তা পাকা হওয়াতে সে সমাস্যা সমাধান হবে।
গ্রামের কলেজ পড়ুয়া যুবক নূর হোসেন বলেন,রাস্তা হওয়ায় গ্রামবাসীর ভাগ্যের অর্থনৈতিক সাফল্যের চাকা ঘুরে যাবে এবং নিজেদের ভাগ্য উন্নয়নে নানামুখী পদক্ষেপ নিতে পারবে।ফলে পাল্টে যাবে গ্রামের অর্থনৈতিক ভাগ্যের চাকা।
সব মিলিয়ে পোদউলিয়া গ্রামবাসী আজ পাকা রাস্তা মহাখুশিতে দিনযাপন করছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 231 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
error: ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি