ঝিনাইদহে সড়ক দুর্ঘটনায় গড়াই পরিবহনে থাকা কলেজ শিক্ষিকা নিহত আহত ২৫ !

Print


স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বিষয়খালী এলাকার দোকানঘর নামক স্থানে রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে মটরসাইকেল আরোহীকে বাঁচাতে গিয়ে যাত্রিবাহী বাস নিয়ন্ত্রন হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা খেয়ে এক কলেজ শিক্ষিকা নিহত ও অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছেন।

নিহত আফরোজা ইসলাম মৌ (৩৭) ঝিনাইদহের শৈলকুপা মহিলা কলেজের প্রভাষক। তিনি একই উপজেলার হরিহরা গ্রামের প্রভাষক সাইফুদ্দীন মানিকের স্ত্রী। নিহত আফরোজা ইসলাম মৌ এসএসসি পরিক্ষার্থী ছেলেকে দেখে খুলনা থেকে বাসায় ফিরছিলেন বলে জানিয়েছেন তার ফুফাত ভাই কানন।

এদিকে, ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে এখনও অজ্ঞান হয়ে আশংখা জনক অবস্থায় আছেন ঝিনাইদহ সদরের বনানীপাড়ার বিল্লালের ছেলে লিটন। উন্নত চিকিৎসার জন্য আহতদের মধ্যে যশোরের লিটন ও শৈলকুপার চতুরা গ্রামের মৃত:আকবরের ছেলে নেকবারকে যশোর ও ফরিদপুরে রেফার্ড করা হয়েছে। হতাহতদের কেশির ভাগ অফিস ফেরৎ সরকারী বেসরকারী চাকরীজীবী বলে জানা গেছে।

আহতদের মধ্যে শৈলকুপা চতুড়ার আকবার বিশ্বাসের ছেলে কফিল বিশ্বাস জানান, গড়াই পরিবহনের যাত্রীবাহি বাসটি ঝিনাইদহের বিষয়খালী বাজারের দোকান ঘর নামক স্থানে পাশের রাস্তা থেকে হঠাৎ করে উঠে আসা মটরসাইকেল আরোহীকে বাঁচাতে গিয়ে প্রথমে গাছের সাথে ধাক্কা লেগে গাড়িটি রাস্তায় উঠে এসে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পুনরায় দ্বিতীয় গাছের সাথে ধাক্কা খায়। ফলে গাড়িতে থাকা সবাইই গুরুতর আহত হলে ঝিনাইদহ ফায়ার সার্ভিসের গাড়িতে করে আহতদেরকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ঝিনাইদহ ফায়ার সার্ভিসের সাব-স্টেশন অফিসার আব্দুর রউফ জানান, খুলনা থেকে ছেলে আসা কুষ্টিয়াগামী গড়াই পরিবহনের একটি যাত্রীবাহি বাস ঝিনাইদহের দোকান ঘর নামক স্থানে এসে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা খায়।

এতে বাসে থাকা অন্তত ২৫ যাত্রী আহত হন। পরে তাদের উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ সুজন, আফরোজা ইসলাম মৌকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। আহত যাত্রীরা জানান, গড়াই পরিবহনের বাসটি বেপরোয়া গতিতে চলছিলো।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 144 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ