ঠাকুরগাঁওয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের সাক্ষাতকার নিতে গিয়ে লাঞ্ছিত ২ সাংবাদিক, ক্যামেরা ভাঙচুর

Print

এস. এম. মনিরুজ্জামান মিলন, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ৩ নং আকচা ইউনিয়নে সংবাদ সংগ্রহ করতে লাঞ্ছিত হলেন লাঞ্ছিত হলেন যমুনা টিভি ও মাছরাঙা টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি। উক্ত ২ সাংবাদিককে সাক্ষাতকার না দিয়ে উল্টো লাথি মেরে ক্যামেরা ভাঙচুর করে চৌকিদারকে দিয়ে ইউপি অফিসে আটকে রাখেন ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ৩ নং আকচা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সুব্রত কুমার বর্মন।

রবিবার (৫ জানুয়ারী) বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে পুুলিশ ও সাংবাদিকরা তাদের উদ্ধার করেন।

উল্লেখ্য, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ৩নং আকচা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সুব্রত কুমার বর্মন ঐ ইউনিয়নের শুকানিপাড়া ও মন্ডলপাড়া গ্রামের ৯৮ টি পরিবারকে বিদ্যুৎ লাইন দেওয়ার নামে মাথাপিছু ৯ হাজার টাকা করে সর্বমোট ৯ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়ার খবর গত ৩ ফেব্রুয়ারি যমুনা টিভিতে প্রচারিত হয়। এরপর ৪ ফেব্রুয়ারি রাতে চেয়ারম্যানের নির্দেশে তার লোকজন ঐ দুই গ্রামের বিদ্যুৎ গ্রাহিতাদের দ্রুত সংযোগ দেয়ার নাম করে সাদা কাগজে সাক্ষর নিয়ে আসে।

খবর পেয়ে যমুনা টিভির জেলা প্রতিনিধি, মাছরাঙা টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি ও ক্রাইম ওয়াচের জেলা প্রতিনিধি আজ রবিবার দুপুরে ঐ গ্রামে গিয়ে ভুক্তভোগীদের সাক্ষাতকার নেয়। পরে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে চেয়ারম্যান সুব্রতর কাছে সাক্ষাতকার আনতে গেলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে সাংবাদিকদের উপর হামলা চালায়।

৩ নং আকচা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সুব্রত কুমার দ্বারা সাংবাদিকদের ক্যামেরা ভাঙচুর ও লাঞ্ছিতের ঘটনায় জেলায় কর্মরত বিভিন্ন পত্রিকা ও টিভি চ্যানেলের প্রতিনিধিরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানানোর পাশাপাশি দোষীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার জোর দাবি জানিয়েছেন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 221 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ