ডাক্তারের ইচ্ছায় ৮০ ভাগ শিশুর জন্ম সিজারে [ভিডিও]

Print

বেসরকারি হাসপাতালে ৮০ ভাগ শিশুই জন্ম নিচ্ছে সিজারিয়ান অপারেশনে। চিকিৎসকরা বলছেন প্রসূতির অবস্থা জটিল থাকলে অপারেশন করা হয়। অনেক ক্ষেত্রে রোগী নিজেও তা চান। তবে রোগীরা বলছেন বেশিরভাগ ক্ষেত্রে চিকিৎসকই অস্ত্রোপচারে উৎসাহিত করেন।

উন্নত দেশে স্বাস্থ্যখাতে অনেক সুযোগ-সুবিধা থাকা সত্ত্বেও, অস্ত্রোপচারে শিশু জন্মের নজির কম। ব্রিটেনের রাজ পরিবারের প্রিন্স উইলিয়াম দম্পত্তির দুই সন্তানের জন্ম, স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায়। সাবেক বিশ্ব সুন্দরী বলিউড অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রায়ের কন্যাও জন্ম নিয়েছে একইভাবে। হলিউড-বলিউডসহ বিশ্বের নামী-দামী সেলিব্রেটিদের প্রায় সবার সন্তানের জন্মই নরমাল ডেলিভারিতে।

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, ৫২টি দেশে শিশু জন্মে অস্ত্রোপচারের হার ১০ শতাংশের নিচে। ১৪টি দেশে ১০ থেকে ১৫ শতাংশ। আর ৬৯টি দেশে ১৫ শতাংশের বেশি।

সেই তুলনায় পুরো বাংলাদেশে সিজারিয়ান ডেলিভারি ২৩ ভাগ। আর বেসরকারি হাসপাতালে ৮০ ভাগ।

বাংলাদেশে কেন সিজারিয়ান অপারেশন বাড়ছে? এমন প্রশ্ন ছিলো, প্রসূতি ও সদ্য মা হওয়া নারীদের কাছে।

তারা বলছেন, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে চিকিৎসকই অস্ত্রোপচারে উৎসাহিত করেন।

চিকিৎসকরা বলছেন, অস্ত্রোপচারে ক্ষেত্রে রোগীর পছন্দ ও তার শারিরীক অবস্থা বিবেচনা করা হয়।

তবে অনুসন্ধানে দেখা গেছে, বেশিরভাগ গর্ভবতী নারী, চিকিৎসকের ওপর নির্ভর করেন।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নরমাল ডেলিভারির জন্য চিকিৎসকরা প্রসূতিদের কাউন্সেলিং করেন না। তারা বরং কম সময়ে বেশি টাকা উপার্জনের জন্য অপারেশনে উৎসাহিত করেন। যা পেশার নৈতিকতার পুরোপুরি বিপরীত।

স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানান, চিকিৎসকদের এমন অপেশাদার আচরণ, অত্যন্ত দুঃখজনক। তাই এ বিষয়ে দ্রুত নীতিমালা করা হবে।

এসডিজি বাস্তবায়নের পথে মা ও শিশুস্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতের জন্য চিকিৎসকদেরর আরো মানবিক হবার আহ্বান জানালেন তিনি।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 233 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ