ঢাবিতে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে রাজধানীর সাত কলেজ

Print

রাজধানীর সাতটি সরকারি কলেজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অন্তর্ভুক্ত করার নীতিগত সিদ্ধান্ত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিষয়টি এখন বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
সূত্রে জানা যায়, দেশের সব কলেজ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্ভুক্ত করার মৌখিক পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিষয়টিকে নানা পর্যবেক্ষণের পর প্রাথমিক পর্যায়ে রাজধানীর ঐতিহ্যবাহী সাতটি সরকারি কলেজ ঢাবির অধীনস্ত করার সিদ্ধান্ত নেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

বাকি সরকারি কলেজ পর্যায়ক্রমে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্ভুক্ত করা হবে। এ ক্ষেত্রে কলেজগুলোর নিকটবর্তী পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে যাবে। গত ২৯ জানুয়ারি শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের সভাপতিত্বে মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত হয়। সিদ্ধান্ত অনুমোদনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে উপস্থাপন করা হলে তিনি নীতিগত সিদ্ধান্ত দেন।
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (বিশ্ববিদ্যালয়) চৌধুরী আব্দুল আল হাসান বলেন, প্রথম পর্যায়ে সরকারি সাতটি কলেজ ঢাবির অন্তর্ভুক্ত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নীতিগত সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। বর্তমানে এটি বাস্তবায়নে কাজ চলছে।
তিনি আরও বলেন, এ বিষয়ে আমরা বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি), ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়কে নির্দেশনা দিয়েছি। উভয় প্রতিষ্ঠানের সমন্বয়ে অধিভুক্ত করার কার্যক্রম বাস্তবায়ন করবে। এছাড়া এ বিষয়ে আইন তৈরি বা পরিবর্তনের প্রয়োজন হবে কি না সেটিও পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।
সাতটি কলেজ হলো- ঢাকা কলেজ, ইডেন কলেজ, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর বাঙলা কলেজ ও সরকারি তিতুমীর কলেজ। কলেজগুলোতে বর্তমানে অধ্যয়নরত আড়াই লক্ষাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে।
২০১৪ সালের ৩১ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষা মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে গিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত ২৮১টি সরকারি কলেজকে বিভাগীয় পর্যায়ে পুরনো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্ত করার নির্দেশনা দেন। পরে এ বিষয়ে সেমিনার ও ওয়ার্কশপ করে বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ কর্তৃপক্ষ, শিক্ষাবিদসহ সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞদের মতামত নেয়া হয়।
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য ইউজিসি কমিশনের সাবেক সদস্য অধ্যাপক মো. মোহাব্বত খানের নেতৃত্বে ছয় সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে। কমিটি দফায় দফায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে বৈঠক করে। গত ৬ সেপ্টেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে একটি প্রতিবেদন দাখিল করে।
এছাড়া ইউজিসির দ্বিতীয় কমিটি দেশের ১৯টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের নিকটবর্তী এরিয়া নির্ধারণ করে ২৭৬টি কলেজ ভাগ করে দেয়।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 231 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ