তিন তারকা ফর্মে ফেরায় স্বস্তি দলে

Print

জাতীয় দলে প্রবেশ করে শুরুতেই অসাধারণ কিছু ইনিংস খেলে সবাইকে মুগ্ধ করেছিলেন সৌম্য সরকার। কিন্তু সেই ফর্মটা তিনি বেশিদিন ধরে রাখতে পারেননি। ২০১৫ সালটা তার দারুণভাবে কাটলেও ২০১৬ সালে এসে ব্যর্থ তিনি। জাতীয় দল কিংবা ঘরোয়া ক্রিকেট কোথাও রানের দেখা পাচ্ছিলেন না সৌম্য।
সম্প্রতি বাংলাদেশ দলের শ্রীলঙ্কা সফরে টেস্ট সিরিজে ভালো করলেও ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে সৌম্য ছিলেন অনুজ্জ্বল। তবে, আয়ারল্যান্ডে চলতি ত্রিদেশীয় সিরিজে হাসছে সৌম্যের ব্যাট। টানা দুইটি হাফ সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন তিনি। গত ১৭ মে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৬১ রান করার পর গতকাল আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৮৭ রান করে অপরাজিত থাকেন বাংলাদেশের তরুণ এই ওপেনার।

অন্যদিকে, শ্রীলঙ্কা সিরিজ চলাকালীন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দলে থাকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। তাকে দেশে ফেরৎ পাঠানো হচ্ছিলো। কিন্তু অনেক সমালোচনার পর তাকে শেষমেশ দলে রাখা হয়। তবে, দলে থাকলেও তিনি সেভাবে কিছু করে দেখাতে পারেননি।
তবে, আয়ারল্যান্ড সিরিজে তিনি তার সামর্থ্যের প্রমাণ দিয়েছেন। ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরুর আগে আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের বিপক্ষে ৩১ বল খেলে ৪৯ রান করেছিলেন রিয়াদ। ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে দলের বিপদের মুখে ব্যাট করতে নেমে ৪৩ রান করে অপরাজিত ছিলেন তিনি। ওই ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়েছিল। এরপর গত ১৭ মে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হাফ সেঞ্চুরি করেন ‘আনসাং হিরো’ বলে খ্যাত রিয়াদ। ম্যাচটিতে তার ব্যাট থেকে আসে ৫১ রান। আর গতকালের ম্যাচে রিয়াদ ব্যাটে নামার আগেই জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ।
অন্যদিকে, ২০১৫ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক ম্যাচ থেকেই বিশ্বব্যাপী সাড়া ফেলে দিয়েছিলেন পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। একের পর এক সাফল্য পেয়ে বিশ্বের বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানদের ঘুম হারাম করে দিয়েছিলেন তিনি।
জাতীয় দলে সাফল্য পাওয়ার পর বিদেশি টি-টোয়েন্টি লিগে ডাক পেতে শুরু করেন মোস্তাফিজ। গতবছর খেলতে যান ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল)। প্রথমবার খেলতে গিয়েই টুর্নামেন্টের সেরা উদীয়মান খেলোয়াড় নির্বাচিত হন মোস্তাফিজ। নিয়মিত দুর্দান্ত বোলিং করে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে চ্যাম্পিয়ন করার ক্ষেত্রে বিশাল অবদান রাখেন তিনি। এরপর তিনি ইংল্যান্ডে কাউন্টি ক্রিকেটে খেলতে যান।
কিন্তু কাঁধের ইনজুরির কারণে সেখানে নিয়মিত হতে পারেননি তিনি। সেখান থেকে অপারেশন করে দেশে ফিরতে হয় তাকে। এরপর দীর্ঘদিন থাকেন জাতীয় দলের বাইরে। গত ডিসেম্বরে বাংলাদেশ দলের নিউজিল্যান্ড সফরে দলে ফেরেন তিনি।
কিন্তু ওই সফরে তিনি একাদশে নিয়মিত ছিলেন না। যে কয়েকটি ম্যাচ খেলেছিলেন তাতেও তেমন কিছু করতে পারেননি মোস্তাফিজ। এরপর বাংলাদেশ দলের ভারত সফরে তিনি দল থেকে বাদ পড়েন। তবে, গত মার্চ-এপ্রিলে বাংলাদেশ দলের শ্রীলঙ্কা সফরে তিনি দলে ফিরেন। এই সিরিজে ফেরার আভাস দেন মোস্তাফিজ।
এবার আয়ারল্যান্ডে চলতি ত্রিদেশীয় সিরিজে পুরোপুরি ফর্মে ফিরলেন ‘কাটার মাস্টার’। ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশের একটি ম্যাচ বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হওয়ায় ওই ম্যাচে বল করার সুযোগ পাননি মোস্তাফিজ। এরপর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে নয় ওভার বল করে ৩৩ রান দিয়ে দুইটি উইকেট নেন তিনি। আর গতকাল আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে নয় ওভার বল করে ২৩ রান দিয়ে তিনি নেন চারটি উইকেট।
আগামী ১ জুন বাংলাদেশ ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির অষ্টম আসর। এই আসরে বাংলাদেশের গ্রুপে রয়েছে ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার মতো শক্তিশালী দল। সুতরাং, এত বড় একটি টুর্নামেন্ট সামনে রেখে একইসাথে গুরুত্বপূর্ণ তিন খেলোয়াড়ের ফর্মে ফেরাটা দলের জন্য খুবই স্বস্তির।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 106 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ