দক্ষিণ আফ্রিকার পার্লামেন্টে হাতাহাতি

Print

বিরোধী দলের একজন আইনপ্রণেতাকে ধরে পার্লামেন্ট ভবনের বাইরে নিয়ে যান নিরাপত্তাকর্মীরা।দক্ষিণ আফ্রিকার পার্লামেন্টে জাতির উদ্দেশে প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমার বার্ষিক ভাষণের সময় ব্যাপক হট্টগোল ও হাতাহাতি হয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার দেশটির পার্লামেন্টে প্রেসিডেন্টের ভাষণ দেওয়ার সময় চিৎকার করে তীব্র প্রতিবাদ জানান বিরোধী দলের আইনপ্রণেতারা। তাঁরা জুমার পদত্যাগ দাবি করেন। তখন নিরাপত্তাকর্মীদের সঙ্গে ওই আইনপ্রণেতাদের হাতাহাতি হয়। তাঁরা পরস্পরকে ঘুষি মারতে থাকেন। একপর্যায়ে সাদা শার্ট পরা প্রায় ৩০ জন নিরাপত্তাকর্মী জোর করে কট্টর বামপন্থী ইকোনমিক ফ্রিডম ফাইটার্স (ইএফএফ) দলের ২৫ জন আইনপ্রণেতাকে টেনেহিঁচড়ে বের করে দেন।

বের করে দেওয়ার আগে পার্লামেন্টের স্পিকার বালেকা এমবেটে ইএফএফের আইনপ্রণেতাদের উদ্দেশে বলতে থাকেন, ‘আমাদের ধৈর্য ধরা উচিত। আমরা আপনাদের মত প্রকাশের সুযোগ দেওয়ার চেষ্টা করছি। তবে পরিস্থিতি বিশৃঙ্খল হয়ে পড়েছে।’পার্লামেন্টে প্রেসিডেন্টের ভাষণের সময় বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে বিরোধী দলের আইনপ্রণেতাদের বের করে দিতে তৎ​পর নিরাপত্তাকর্মীরা (সাদা পোশাক)।
ইএফএফের প্রতিবাদের মুখে তিন বছর থেকেই প্রেসিডেন্টের বার্ষিক ভাষণ দেওয়ার সময় বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি হচ্ছে।
বৃহস্পতিবার নিরাপত্তাকর্মীরা পদক্ষেপ নেওয়ার কিছুক্ষণ আগে ইএফএফের নেতা জুলিয়াস মালেমা প্রেসিডেন্ট জুমাকে ‘আপাদমস্তক পচে যাওয়া সংশোধনের অযোগ্য একজন মানুষ’ বলে বর্ণনা করেন।
সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইএফএফ ও অন্য রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতিবাদের মুখে নির্ধারিত সময়ের ৯০ মিনিট পর জুমা ভাষণ দেন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 167 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ