দাম্পত্যে সুখী হতে চাইলে যে অভ্যাসগুলো বদলানো দরকার !

Print

অনেকে দাম্পত্য কলহ থেকে মুক্তি পেতে বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন। কেউ আবার বিবাহবিষয়ক পরামর্শদাতার কাছে যান। এ ক্ষেত্রে কারো সম্পর্ক ঠিকঠাক হয়, কারোটা আবার ভেঙে যায়। এ সবকিছু বাদ দিয়ে শুধু নিজের সাতটি অভ্যাস বদলে ফেলুন। দেখবেন, আবার আপনাদের দাম্পত্য জীবনে সুখ ফিরে আসবে। কী, বিশ্বাস হচ্ছে না? তাহলে রিডার্স ডাইজেস্টের এই পরামর্শগুলো একবার দেখে নিতে পারেন।

১. বিরক্তি প্রকাশ করা বন্ধ করুন। সঙ্গীর সব কাজে বারবার বিরক্ত হলে সব সময়ই ঝগড়া হবে। তাই সুখে থাকতে চাইলে এই অভ্যাস বদলে ফেলুন।

২. সঙ্গীর কাঁধে দোষ চাপানোর অভ্যাসটা ত্যাগ করুন। কোনো কিছু হলেই আপনি তাঁকে কথা শোনান। সবকিছুর জন্য তাঁকেই দায়ী করেন। আপনি হয়তো বুঝতেই পারছেন না যে এই বদঅভ্যাস আপনাদের দাম্পত্য জীবনের সুখ নষ্ট করেছে।

৩. আপনার কর্কশ স্বভাবের জন্য আপনাদের সম্পর্ক খুব একটা রোমান্টিক নয়। এ জন্য কিন্তু আপনিই দায়ী। তাই সঙ্গীর সঙ্গে নমনীয় থাকার চেষ্টা করুন। আর সব সময় নিজের কথাই ভাববেন না। এই স্বার্থপরতা আপনাদের সম্পর্কের ইতি টানতে পারে।

৪. অতিরিক্ত উত্তেজনা সবকিছু ধ্বংস করে। তাই শান্ত থাকার চেষ্টা করুন। আপনার এই বদঅভ্যাসের কারণে দাম্পত্য জীবনে আপনি অনেকটা অসুখী।

৫. তর্ক করে ঝগড়ায় জিততে যাবেন না। আপনার আত্মকেন্দ্রিক যুক্তি কখনোই সঙ্গী মেনে নেবেন না। এর ফলে ঝগড়া লেগেই থাকবে। তাই অযথা তর্ক করা বন্ধ করুন।

৬. যখন সঙ্গী কোনো বিষয়ে কথা বলতে চাইবেন না, তখন সে বিষয়ে তাঁকে জোর করবেন না। সঙ্গীর মাথা ঠান্ডা হলে তিনি নিজেই এসে আপনাকে বলবেন। আর তা না হলে আপনার বদঅভ্যাসের কারণে সঙ্গী নিজের মনের কথাগুলো আপনাকে বলতেই চাইবেন না।

৭. সংসারের বড় বড় সিদ্ধান্ত নিজে নেওয়ার চেষ্টা করবেন না। এতে সঙ্গী মনে করবেন আপনি তাঁকে পাত্তা দিচ্ছেন না। এ কারণে আপনাদের সম্পর্কে টানাপড়েন লেগেই থাকবে। তাই সব ধরনের সিদ্ধান্ত দুজন মিলেই নিন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 424 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ