দেড়মাসে এসেছেন ৫০ হাজার রোহিঙ্গা

Print

নির্যাতনের মুখে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকার সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করার পরও রাখাইন থেকে রোহিঙ্গা আগমন বন্ধ হয়নি। গত দেড় মাসে পালিয়ে বাংলাদেশে এসেছেন আরো ৫০ হাজার রোহিঙ্গা। সমুদ্র ও নদীপথে আসছেন তারা। গত বুধবার শীলখালী হয়ে শতাধিক রোহিঙ্গা ভর্তি ট্টলার উপকূলে নোঙর করে। পরে তাদের কুতুপালং ক্যাম্পে নেয়া হয়।
বাংলাদেশ সরকার যখন রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন চুক্তি বাস্তবায়নের দিকে যাচ্ছে তখনই মিয়ানমার সরকার নতুন অজুহাত তৈরি করেছে। গত শুক্রবার রাখাইনে সেনাবাহিনীর টহলরত গাড়ি লক্ষ্য করে বোমা হামলার অজুহাত দেখিয়ে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে সংকট তৈরি করেছে সুচি’র সরকার। রাখাইনে সেনা টহল জোরদার করেছে। এ পরিস্থিতিতে এপারে বিজিবিও সতর্কাবস্থায় রয়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।
উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্পে সদ্য আগত কয়েকজন রোহিঙ্গার সাথে কথা বলে জানা গেছে, গত শুক্রবার রাখাইনের মংডুর তোরাইন এলাকায় আরসা মিয়ানমার সেনাবাহিনীর গাড়ী বহরে কথিত হামলা চালিয়েছে। এতে একজন সেনা সদস্য নিহত ও দুই সেনা আহত হওয়ার দাবি করেছে সেনাবাহিনী। এরপর মিয়ানমার সেনারা বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে আরসা সদস্যদের তল্লাশীর নামে নিরীহ রোহিঙ্গাদের মারধর, লুটপাটসহ নানা নির্যাতন শুরু করেছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 55 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ