দোহার নবাববগঞ্জ থেকে হারিয়ে গেছে ঢেঁকি

Print

( মোঃ জাকির হোসেন ) ঢাকা দোহার প্রতিনিধি :  ঢাকার দোহার নবাবগঞ্জ থেকে যুগের পরিবর্তনে হারিয়ে গেছে ধান থেকে ভারা বেনে চাল বেড় করার ঐতিহ্যবাহী ঢেঁকি। ঢাকার দোহার উপজেলার মুকসুদপুর ইউনিয়নের মধুরখোলা এলাকার আছিমন খাতুন (৬৫) জানায়, আমার ঞ্জান হবার পর থেকে আমাদের বাড়ীসহ গ্রামের দু একটি বাড়ি ছাড়া সব বাড়িতে ঢেঁকি থাকতো। মা চাচীর সাথে পাল্লা দিয়ে ভারা ভানতাম। যদি ভারাভানতে না চাইতাম তখন তারা বলতো, পরের বাড়িতে গেলে এইটা কইরা খাইতে হইব। আগে থাকতে অভ্যেস কর। এখনও আমার শ্বাশুড়ির চিহ্নটা রাইখা দিছি। নবাবগঞ্জ উপজেলার নয়নশ্রী ইউনিয়নের তুইতাল এলাকার ভাগ্যবতি দাস (৭০) জানায়, আগে ভাতের অভাবে মা বাবারা তাদের মেয়েদের বা ছেলেদের গৃহস্থবাড়িতে বিয়ে দিত এবং বিয়ে করাতো। আমি এই বাড়িতে বৌ হয়ে এসে অন্য বৌদিদের সাথে অনেক রাতে উঠতাম এক সাথে ঢেঁকিতে ভারা ভেনে চাল বেড় করে তার পর ভাত রান্না করতাম। এখন যুগ বদলেছে বাড়িতে মেশিন এসে ধান ভেঙ্গে দিয়ে যায়। তবে এখনও ঢেঁকি দিয়ে চাউলের গুড়ি বানাইয়া পিঠা তৈরি করি। নয়াবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান জানায়, দোহার ও নবাবগঞ্জের দু একটি বাড়ি ছাড়া আর কোথাও ঢেঁকি পাওয়া যাবেনা। আমরাতো চিনতে পারি তবে আগামী পৌজম্ন ঢেঁকি কাকে বলে চিনবেই না।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 161 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ