ধর্ষক নাঈমের সঙ্গে সেলফি থাকায় বিব্রত সেলিব্রেটিরা

Print

ধর্ষক নাঈমের সঙ্গে সেলফি থাকায় বিব্রত সেলিব্রেটিরা

বেসরকারি টিভি চ্যানেল একুশে টিভির অনুষ্ঠান প্রধানের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে ফারহানা নিশোকে। সকলে ধারণা করছে বনানী ধর্ষনের অন্যতম মূল চরিত্র এবং প্রতারক দুই নম্বর আসামি আব্দুল হালিম ওরফে নাঈম আশরাফের সাথে সু-সম্পর্কের কারণে তাকে চাকরী থেকে অব্যহতি দেওয়া হয়েছে।

ৱফারহানা নিশোর সাথে নাঈম আশরাফের ছবি ফেইসবুকে ভাইরাল হওয়ার প্রেক্ষিতে এমন আদেশ একুশে টিভি দেয় বলে ধারনা করা হচ্ছে।

তবে শুধু ফারহানা নিশোই নয়, বরং অন্য সাংবাদিক, সঙ্গীত শিল্পী, খেলোয়াড়, অভিনয় শিল্পী, মডেলসহ প্রায় সকল শ্রেনী-পেশার মানুষের সাথেই নাঈমের সেলফি রয়েছে। মূলত: প্রতারক নাঈম এই সব সেলফি দিয়ে নানা মানুষকে তার প্রতারণার জালে ফেলত বলে ধারনা করা হচ্ছে।

বনানী ধর্ষণ মামলার অন্যতম আসামী নাঈমের সাথে ছবি থাকায় অনেক সেলিব্রেটি বিব্রত। প্রতারক নাঈম আশরাফের সাথে ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান, আশরাফুল,নায়ক হিরো আলম, সাংবাদিক ফারহানা নিশো ছাড়াও মুন্নি শাহা, মডেল রাহা তানহা খান, সঙ্গীত শিল্পী আসিফসহ অসংখ্য সেলিব্রেটির ছবি পাওয়া গেছে।

বনানী ধর্ষণ মামলার অন্যতম আসামী নাঈমের সাথে ছবি থাকায় অনেক সেলিব্রেটি বিব্রত। অবশ্য যাদের সাথে নাঈমের ছবি পাওয়া গেছে বেশীর ভাগই এখন নাঈমের সাথে সু-সম্পর্কের কথা অস্বীকার করছেন। যেমন, মডেল রাহা বনানী ধর্ষণ মামলার অন্যতম আসামী নাঈমের সাথে ছবি থাকায় অনেক সেলিব্রেটি বিব্রত।

তানহা খান বলেন, ‘গেল বছর একটি কনসার্টের জন্য নেহা কাক্কারকে ঢাকায় এনেছিলেন নাঈম আশরাফ। তখন ওই অনুষ্ঠানে আমাকে পারফর্ম করার জন্য নাঈম নিজেই ফোন করেছিলেন। আমি তখন অন্য কাজে ব্যস্ত থাকায় তার অনুষ্ঠানে যেতে পারিনি। তখন নাঈমকে আমি চিনতামও না। বনানীর একটি খাবার রেস্তোরাঁয় নাঈম আমাকে দেখে ডাকেন। তখন তিনি তার পরিচয় দেন; এরপর দূর থেকে আমার সঙ্গে একটি সেলফি তোলেন। এরপর তার সাথে আমার দেখা, কথা কিছুই হয়নি।’

বনানী ধর্ষণ মামলার অন্যতম আসামী নাঈমের সাথে ছবি থাকায় অনেক সেলিব্রেটি বিব্রতএই বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সেলফি তুলা একজন সেলিব্রেটি বলেন, আমরা প্রতি নিয়ত অসংখ্য ফ্যানের সাথে সেলফি তুলি। তার মানে কিন্তু এই না যে, সবাইকে আমরা চিনি। নাঈমকেও আমি চিনতাম না। বর্তমানে সব জেনে বুঝতে পারছি, আমার ছবি ব্যবহার করে নাঈম হয়তো বিভিন্ন সুবিধা নিতো। কেননা, সে বনানী ধর্ষণ মামলার অন্যতম আসামী নাঈমের সাথে ছবি থাকায় অনেক সেলিব্রেটি বিব্রতএকজন প্রতারক। আর প্রতারকদের ধর্ম অনুসারে সে হয়তো আমার ছবি ব্যবহার করে সবাইকে বলত আমাকে সে চিনে।

বনানী ধর্ষণ মামলার অন্যতম আসামী নাঈমের সাথে ছবি থাকায় অনেক সেলিব্রেটি বিব্রতনাঈমকে ইতিমধ্যে পুলিশ মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার খিদিরপাড়া থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ হয়তো নাঈমের কার কার সাথে সু-সম্পর্ক ছিল, কেমন সম্পর্ক ছিল শীঘ্রই উদঘাটন করবে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 848 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ