নবজাতকের নাভি

Print

নবজাতকের নাড়ি বা নাভি হল খুবই নাজুক একটি অঙ্গ। জন্মের এক থেকে তিন সপ্তাহের মাঝে এই নাভি শুকিয়ে ঝরে পড়ে। এই সময়ের মাঝে নবজাতকের নাভির দিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখা উচিৎ। স্বাভাবিকভাবে নাভি ঝরে পড়লে এটি শিশুর দেহে খুবই সামান্য ক্ষত সৃষ্টি করে যা অতি অল্প সময়ের মাঝেই ভাল হয়ে যায়।

নবজাতকের নাভি বা নাড়ি জন্মের আগে মায়ের প্লাসেন্টার সাথে যুক্ত থাকে। প্লাসেন্টা মায়ের জরায়ুর ভেতরের দেয়ালের সাথে শিশুর নাড়িকে সংযুক্ত করে। এই নাড়ির মাধ্যমেই শিশুমায়ের শরীর থেকে পুষ্টি গ্রহণ করে। জন্মের সময়, শিশুর মায়ের সাথে যুক্ত এই নাভি ব্যথাহীন উপায়ে কর্তন করা হয়।

নবজাতকের নাভির যত্নে কিছুতথ্য

  • জন্মের পর ডাক্তাররা শিশুর নাভিকে ক্ল্যাম্প করে বা পেঁচিয়ে ক্লিপের মত প্লাস্টিক বা মেটালের কর্ড ক্ল্যাম্প বা টেইপ লাগিয়ে দেন। এতে নাভিতে রক্ত প্রবাহ দ্রুত বন্ধ হয়ে যায় এবং নাভিতে ইনফেকশান হওয়ার সম্ভাবনাও কমে শিশুর নাভি যথাসম্ভব পরিষ্কার এবং শুকনো রাখতে হবে।শিশুকে ডায়পার পরানোর সময় খেয়াল রাখুন ডায়পার যেন নাভিকে কোন অবস্থাতেই ঢেকে না রাখে। নাভি যেন বেশিরভাগ সময় বাতাসে উন্মুক্ত থাকে।
  • নাভি ঝরে না যাওয়া পর্যন্ত শিশুকে টাবে বা সরাসরি গায়ে পানি ধেলে গোসল করানো উচিৎ নয়। জন্মের পর প্রথম ৩ সপ্তাহ স্পঞ্জের সাহায্যে শিশুর গা আস্তে আস্তে মুছে মুছে পরিষ্কার করা উচিৎ।
  • গরমের সময়ে শিশুকে নরম সুতির জামা পরান উচিৎ যেন শরীরের ভেতরে যথেষ্ট পরিমাণ বাতাস চলাচল করতে পারে।
  • এই সময়টায় শিশুকে শরীর জড়িয়ে ধরে রাখে এমন জামা পরানো উচিৎ নয়।
  • নাভি ঝরার সময় এমন হতে পারে নাভিড় কিছুটা অংশ শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে আবার কিছুঅংশ সুতার মত শরীরের
  • সাথে যুক্ত থাকতে পারে। এই সময় কোন অবস্থাতেই নাভি ধরে টানা উচিৎ নয়। নাভি আপনা আপনিই  ঝরে পড়ে অনেক সময় ঝরে পড়া নাভির সাথে কিছুটা মাংসপিণ্ড দেখা যেতে পারে। মাংস দেখে ভয় পাওয়ার কিছুনাই। এই ধরণের মাংসপিণ্ডকে বলা হয়  umbilical granuloma। এতে কোন নার্ভ থাকে না। তাই শিশুও কোন ব্যথা পায় না।
  • শিশুর নাভি জীবাণুমুক্ত রাখতে ডাক্তাররা এক ধরনের ডাই জাতীয় অ্যান্টিসেপটিক ব্যবহারের পরামর্শ দেন।ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী নিয়মিত এই ডাই ব্যবহার করা উচিৎ।
  • নাভির গোড়ার অংশ নিয়মিত তুলা দিয়ে পরিষ্কার করা উচিৎ।নাভি পরিষ্কার রাখতে সামান্য পরিমাণ অ্যালকোহল  বা পার -অক্সাইড দিয়ে দিনে একবার বা ২ বার নাভি মুছে

নবজাতকের নাভির ইনফেকশান হওয়ার উপসর্গ

নবজাতকের নাভিতে খুব অল্পতেই ইনফেকশান হতে পারে যদি সঠিকভাবে যত্ন না নেয়া হয়। নিচে শিশুর নাভিতে ইনফেকশান হলে তার উপসর্গগুলি তুলে ধরা হল-

  • – নাভির গোড়া থেকে বাজে গন্ধ আসা।
  • – জ্বর অথবা অন্য অসুস্থতার লক্ষণ।
  • – নাভির জায়গা থেকে পুঁজ বের হওয়া।
  • – হঠাৎ নাভি ঝরে পড়ার পর রক্ত বের হলে।

উপরের কোন উপসর্গ দেখা মাত্র দেরি না করে শিশুকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 81 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ