নবাবগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কে কত ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হলেন

Print

চতুর্থ ধাপে প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতিকে ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চৌদ্দটি ইউনিয়নের মধ্যে নয়টিতে আওয়ামীলীগ, তিনটিতে বিএনপি, একটিতে জাতীয়পার্টি ও একটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন।

 

শনিবার রাতে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শেখ হাবিবুর রহমান জানান, রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত স্বস্ব রির্টানিং কর্মকর্তা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাকিল আহম্মেদে ও প্রার্থীর উপস্থিতিতে বেসরকারিভাবে এ ফলাফল ঘোষনা করেন।

নির্বাচিত চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন- কলাকোপা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের আলহাজ্ব মো: ইব্রাহীম খলিল  ৪৫৮০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম বিএনপির মহসিন রহমান তুষার       ৩৯৯২ ভোট ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মীর আরিফ হোসেন আনারস প্রতিক নিয়ে ২৩০১ ভোট পেয়েছেন।

যন্ত্রাইল ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের নন্দ লাল সিং ৭৫১৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম বিএনপির মো: সেন্টু মোল্লা ৭৫৮ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী মো: বারেকুর রহমান আনারস প্রতিক নিয়ে      ৪৬৭২ ভোট ও আকুল বেপারী ঘোড়া প্রতিক নিয়ে ৯৩ ভোট পেয়েছেন।

শোল্লা ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের দেওয়ান তুহিন রহমান ৯৩৫৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি স্বতন্ত্র প্রার্থী মো: ফজলুল হক চশমা প্রতিক নিয়ে ৬২৩৬ ভোট পেয়েছেন।

কৈলাইল ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের পান্নু মাদবর ৩৫৯৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি স্বতন্ত্র প্রার্থী নাসির উদ্দিন আনারস প্রতিক নিয়ে ৩৫৩৩ ভোট পেয়েছেন।

বকসনগর ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের আব্দুল ওয়াদুদ মিয়া ৮২৮৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচন বয়কট করা তার নিকটতম বিএনপির এরশাদ আল-মামুন ২০৯৭ ভোট পেয়েছেন।

বাহ্রা ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের অ্যাডভোকেট সাফিল উদ্দিন মিয়া ৬৯৮৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম বিএনপির হাজী আব্দুস সালাম ১৭৩৩ ভোট ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সুবেদ্দুজ্জামান সুবেদ আনারস প্রতিক নিয়ে ৬১২৪ ভোট পেয়েছেন।

আগলা ইউনিয়নে বিএনপির আবেদ হোসেন ৪০৩৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম আওয়ামীলীগের সুরুজ খান ৪০১১ ভোট পেয়েছেন।

বান্দুরা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিল্লাল মিয়া আনারস প্রতিক নিয়ে ১১৭২৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম আওয়ামীলীগের নাসির উদ্দিন ৩৪৯০ ভোট পেয়েছেন।

নয়নশ্রী ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির রিপন মোল্লা লাঙ্গল প্রতিক নিয়ে ৪৪১৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম আওয়ামীলীগের পলাশ চৌধুরী ৩৬৬২ ভোট, বিএনপির হাবিবুর রহমান খান ২২১১ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী হাবিবুর রহমান আনারস প্রতিক নিয়ে ২৩৫৬ ভোট, মো: মাসুদ মোল্লা চশমা প্রতিক নিয়ে ৮৮১ ভোট, সোরহাব হোসেন টেবিল ফ্যান প্রতিক নিয়ে ৫৬ ভোট , মো: আলমগীর ঘোড়া প্রতিক নিয়ে ৪২ ভোট, মো: হাবিবুর রহমান মটর সাইকেল প্রতিক নিয়ে ৪৮৬ ভোট ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সারোয়ার আলম হাতপাখা প্রতিক নিয়ে ২৫৬ ভোট পেয়েছেন।

জয়কৃষ্ণপুর ইউনিয়নে বিএনপির মাসুদুর রহমান ৩৩৩৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম আওয়ামীলীগের আবুল হোসেন  ১৭১২ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী মো: কামাল হোসেন আনারস প্রতিক নিয়ে ২৫৯৮ ভোট  মো: মাহফুজ খান চশমা প্রতিক নিয়ে ৭৫ ভোট ও  মোতাহার হোসেন মটর সাইকেল প্রতিক নিয়ে ১৭৭৯ ভোট পেয়েছেন।

শিকারীপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের আলীমোর রহমান খান পিয়ারা ৪৪৫২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম বিএনপির আব্দুল জব্বার ২১৩৮ ভোট ও  আ.লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মোজাম্মেল হক টিপু আনারস প্রতিক নিয়ে ৪২২০ ভোট পেয়েছেন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 65 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ