নবীগঞ্জ পৃথক সংঘর্ষে মহিলা সহ আহত ৩০

Print

নবীগঞ্জের পল্লীতে পৃথক স্থানে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে মহিলাসহ ১০ জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত খলিল মিয়া কে সিলেট ও রেখা বেগম কে হবিগঞ্জ প্রেরন করা হয়েছে। জানা যায়, উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের বহুল আলোচিত ছোট সাকুয়া ও পূর্ব বড় ভাকৈর ইউনিয়নের কাজিরগাঁও গ্রামে সোমবার বিকালে পুর্ব বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষে মহিলা, বৃদ্ধ সহ ১০ জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহত করগাঁও গ্রামের মৃত আব্দুল হেকিম মিয়ার পুত্র খলিল মিয়া (৬৫) জানান, তিনি বাড়ি থেকে নবীগঞ্জ বাজারে যাওয়ার পথে পূর্ব বিরোধের জের ধরে একই গ্রামের মাসুক মিয়ার পুত্র ইব্রাহিম মিয়া ও নুর ইসলাম এর পুত্র নুরুল আমীন গংরা তাকে টমটম গাড়ি থেকে জোরপূর্বক নামিয়ে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে তার অবস্থার অবনতি ঘটলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। এ নিয়ে ছোট সাকুয়া গ্রামে তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোনো মুহুর্তে আবারো রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করছেন এলাকবাসী। এই সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে আহত ব্যক্তি জানান। অপরদিকে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কাজিরগাঁও গ্রামে ঘটে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ। ওই সংঘর্ষে মহিলা সহ ৯জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত সুমন এর স্ত্রী রেখা রানী (২৫) কে হবিগঞ্জ সদর হাসাপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। অপর আহত মনিন্দ্র এর স্ত্রী মায়ারানী (৩০), তার মেয়ে বিভা রানী (১০) কে নবীগঞ্জ হাসপাতালে ও অন্যান্য আহতদেরকে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 82 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ