নাটোরে সাত বছরের শিশু ধর্ষণের পর হত্যাঃ গ্রেফতার ২

Print


নাটোর প্রতিনিধিঃ
নাটোরের গুরুদাসপুরে সাত বছরের শিশু খাদিজাকে ধর্ষণের পর হত্যা মামলার মূল আসামিসহ পলাতক দুই আসামি নাঈম ভক্তি ও নাজমুল ভক্তিকে গ্রেফতার করে শুক্রবার রাতে গুরুদাসপুর থানায় হস্তান্তর করেছে র‌্যাব-৫। নাটোর র‌্যাব-৫ ক্যাম্পের সিপিসি ২ এর কার্যালয় থেকে প্রেরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
র‌্যাব-৫ ক্যাম্পের সিপিসি-২’র কোম্পানি কমান্ডার মেজর শিবলী মোস্তফা জানান, গত ২০ ডিসেম্বর নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার বিলসা গ্রামের মনিরুল ইসলামের শিশু কন্যা খাদিজা খাতুন নিজ বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের তিন দিন পর বাড়ীর পাশের একটি পুকুর থেকে বস্তাবন্দি অবস্থায় খাদিজার মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
এঘটনায় নিহতের বাবা মনিরুল ইসলাম বাদী হয়ে প্রতিবেশী ৬ জনের নামে গুরুদাসপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এরপর প্রতিবেশী বাদল ভক্তি, তার স্ত্রী নাজমা বেগম ও বাদলের ভাতিজা নজরুল ইসলামকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
হত্যাকাণ্ডের পর থেকে মামলার অপর আসামি নাঈম ভক্তি ও নাজমুল ভক্তি পলাতক ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজশাহী থেকে নাঈম ভক্তিকে ও তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ঢাকার গাজিপুর থেকে নাজমুল ভক্তিকে শুক্রবার গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা গুরুদাসপুর উপজেলার বিলসা গ্রামের মোশারফ হোসেন ভক্তির ছেলে। পরে র‌্যাব তাদের গুরুদাসপুর থানায় হস্তান্তর করেন।
গুরুদাসপুর থানার ওসি দিলিপ কুমার দাস জানান, নাঈম ভক্তি ও নাজমুল ভক্তিকে র‌্যাব থানায় হেফাজতে দিয়েছে। তাদের কাছ থেকে আরো গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। তদন্তের স্বার্থে এখনই তা প্রকাশ করা যাচ্ছে না।

 

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 110 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ