নারীরা কেন মাইগ্রেনে বেশি ভোগেন?

Print
পুরুষের তুলনায় নারীদের মাইগ্রেনজনিত মাথাব্যথার সমস্যা প্রায় চারগুণ বেশি। বিশেষজ্ঞরা এর নানা কারণ পেয়েছেন। তবে ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নাল সম্প্রতি একটি উদ্বেগজনক তথ্য দিয়েছে। সেটা হলো, যেসব নারী মাইগ্রেনে ভুগছেন, পরবর্তী সময় তাঁদের মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ ও হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি অন্যদের তুলনায় বেশি।.
মাসের বিভিন্ন সময় নারীদের রক্তে নানা হরমোনের ওঠানামা মাইগ্রেনের জন্য কিছুটা দায়ী। গবেষণা তথ্য অনুযায়ী, মাসিক হওয়ার প্রথম দুই দিন মাইগ্রেনে ভোগার আশঙ্কা বেড়ে যায়। ৫০ শতাংশ মাইগ্রেন হয় মাসিকের সময় বা ঠিক আগে। তখন রক্তে ইস্ট্রোজেন প্রজেস্টেরন হরমোনের হঠাৎ নিম্নগামিতা এ জন্য দায়ী। জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি খেলে মাইগ্রেন বাড়ে কি না, তা নিয়ে বিতর্ক আছে। মেনোপজ বা রজঃনিবৃত্তির পর মাইগ্রেনের ব্যথা অনেকটাই কমে যায়। এ রকম ঘটে সাধারণত ২৫ থেকে ৪৫ বছর বয়সী নারীদের। এ ছাড়া যেসব কারণকে দায়ী করা হয়, সেগুলো হলো: মানসিক চাপ ও দুশ্চিন্তা, অনিদ্রা, কোনো একবেলার খাবার বাদ দেওয়া, হঠাৎ আবহাওয়ার পরিবর্তন, অতিরিক্ত কফি ইত্যাদি। কিছু খাবারও এর জন্য দায়ী, যেমন: ফাস্ট ফুড, কৃত্রিম চিনি, টাইরামিন সমৃদ্ধ খাবার ইত্যাদি।
মাইগ্রেন প্রতিরোধ করতে আগে দায়ী কারণগুলো বের করুন। মাথাব্যথার দিনগুলো ক্যালেন্ডারে দাগ দিন, তার আগের ২৪ ঘণ্টায় কী খেয়েছেন, কী করছেন, ভেবে দেখুন, মাসিকের দিনগুলোর সঙ্গে মিলিয়ে দেখুন। দিনের ঠিক কোন সময়টায় ব্যথা শুরু হয়েছিল, মনে করে দেখুন। কারণগুলোকে এড়িয়ে চলতে শিখুন। ভালো ঘুম ও নিয়মিত খাদ্যাভ্যাস রপ্ত করুন। সচল থাকুন, নিয়মিত ব্যায়াম করুন। অ্যালকোহল, কফি, চকলেট, ফাস্ট ফুড এড়িয়ে চলুন। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ সেবন করুন।

ডা. মৌসুমী মরিয়ম সুলতানা
মেডিসিন বিশেষজ্ঞ
ইব্রাহিম জেনারেল হাসপাতাল

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 244 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ