নিষিদ্ধ নিষিদ্ধ খেলা শেষ

Print

সম্প্রতি ঢালিউডে শুরু হয়েছে নিষিদ্ধ নিষিদ্ধ খেলা। কিছুদিন আগে চলচ্চিত্রের সব সংগঠনকে নিয়ে গড়া হয় চলচ্চিত্র ঐক্যজোট। তারা শিল্পী সমিতির সাবেক সভাপতি শাকিব খানকে নিষিদ্ধ করে। এর পরপরই চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি শিল্পী সমিতির বর্তমান সহ সভাপতি রিয়াজ, শিল্পী সমিতির বর্তমান সভাপতি মিশা সওদাগর ও প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরুকে নিষিদ্ধ করে।
৮ আগস্ট প্রাথমিকভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান, চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি বদিউল আলম খোকন ও মহাসচিব মুশফিকুর রহমান গুলজারকে। তবে জায়েদ খান ও গুলজারের বিষয়ে প্রদর্শক সমিতির নিষেধাজ্ঞা নেই বলে জানিয়েছেন প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ।

তিনি সেসময় বলেন, আমার ওপর হামলার বিচার না হওয়ায় উপরোক্ত ব্যক্তিদের কোনো সিনেমা প্রেক্ষাগৃহে না চালানোর সিদ্ধান্ত নেয় প্রদর্শক সমিতির কর্তাব্যক্তিরা। তবে হামলার সাথে সরাসরি জড়িত না থাকায় জায়েদ খান এবং মুশফিকুর রহমান গুলজারকে নিষিদ্ধ তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে।
ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ আরও বলেন, যদি এই হামলার বিচার না হয় তাহলে সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে সারাদেশে সিনেমা হল বন্ধ করে দেওয়া হবে। সিনেমা হলে কোনো প্রকার চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে না। এরপর নতুন সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
কিন্তু আগস্ট পেরোয়নি। ৬ জন নিষিদ্ধের তালিকা থেকে নাম কেটে ফেলতে সক্ষম হলেন। কেননা ইফতেখার আহমেদ নওশাদ আর নিষিদ্ধদের দেখা গেল একই সাথে আনন্দময় সময় কাটাতে। তাহলে সব ঝামেলা মিটিয়ে অতীতকে পেছনে রেখে আবারও একই প্ল্যাটফরমে দাঁড়ালো চলচ্চিত্র পরিবার ও হল মালিক, বুকিং এজেন্ট সমিতি।
গতকাল রাত ৯টার পর থেকেই ফেসবুকে চলচ্চিত্র শিল্পী নেতা জায়েদ খান কিছু ছবি পোস্ট করেন। তারপর সেই ছবিগুলো শেয়ার করতে দেখা গেছে চলচ্চিত্র তারকা ও সংশ্লিষ্টদের। সেইসব ছবিতে চলচ্চিত্র পরিবারের নেতাদের সঙ্গে হাসিমুখে দেখা গেছে হল মালিক ও বুকিং এজেন্ট সমিতির নেতাদের। সবাই ছবিগুলো পোস্ট করে আনন্দ প্রকাশ করছেন সব বিভাজন ভুলে সবাই এক হওয়াতে।
এ বিষয়ে চিত্রনায়ক রিয়াজ ও চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সহ-সভাপতি রিয়াজ বলেন, আমরা একই চলচ্চিত্র পরিবারের মানুষ। ভুল বোঝাবুঝির অবসান হয়েছে। আবারও আমরা সবাই মিলেমিশে ইন্ডাস্ট্রিকে সামনে এগিয়ে নিতে চেষ্টা করব। আজ হল মালিক ও বুকিং এজেন্ট সমিতির নেতাদের সঙ্গে চলচ্চিত্র পরিবারের মিটিং হয়েছে। সেখানে আমরা সবাই মিলেমিশে কাজ করার প্রতিজ্ঞা করেছি।
তবে নিষিদ্ধ নিষিদ্ধ খেলার আওতার বাইরে নন শাকিব খান। মানে শাকিব এখনো নিষিদ্ধ!

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 88 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ