পরকীয়ার জেরে ছাত্রী খুন : ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রের ফাঁসি

Print

 

ইবি লাইভ: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ছাত্র শিহাব উদ্দিন শিশিরকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে। কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের ছাত্রী স্নিগ্ধা আকতার রিমি হত্যা মামলায় তাকে ওই আদেশ দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি আরও এক লাখ টাকা জরিমানা করেছেন আদালত।

সোমবার কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজের (প্রথম আদালত) বিচারক রেজা মোহাম্মদ আলমগীর হাসান এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত শিহাব মিরপুর উপজেলার চুনিপাড়া গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে। পরকীয়ার জের ধরে ওই হত্যাকাণ্ড হয়েছে বলে জানা গেছে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিহাব উদ্দিন শিশির ও সদর উপজেলার চৌড়হাস এলাকার আব্দুল বারীর মেয়ে কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের ছাত্রী স্নিগ্ধা পরিবারের অমতে পালিয়ে বিয়ে করে। দুই পরিবার বিয়ের ব্যাপারটি মেনে না নেয়ায় তারা উভয়ে আলাদা আলাদা ছাত্রাবাসে থাকতেন।
২০১৩ সালের ১৩ই ফেব্র“য়ারি শিশির স্ত্রী স্নিগ্ধাকে নিয়ে তার খালার বাড়ি নওদা বহালবাড়িয়া গ্রামের মৃত আমিনুদ্দিনের বাড়িতে যান। এসময় স্নিগ্ধা অপর এক ছেলের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়েছেন বলে অভিযোগ তুলেন শিশির।

এনিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে ১৪ই ফেব্র“য়ারি রাত সাড়ে ১২টার দিকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পালিয়ে যায় শিহাব উদ্দিন শিশির। পরে নিহত ওই ছাত্রীর খালাত ভাই আব্দুল­াহ আল মামুন বাদি হয়ে মিরপুর থানায় শিশিরকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত শিশিরকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে। তবে রায় ঘোষণার সময় শিশির পলাতক ছিলেন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 158 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ