পরীক্ষা নেওয়া প্রশ্নের সঙ্গে ফাঁস হওয়া প্রশ্নের শতভাগ মিল

Print

এসএসসির গণিত প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে পরীক্ষার আগের দিন। গতকাল ওই প্রশ্ন দিয়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আগের রাত ১১টায় ফাঁস হওয়া প্রশ্নের সঙ্গে পরীক্ষা নেওয়া প্রশ্নের মিল ছিল না। তবে সকাল সাড়ে ৯টায় যে প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে সেটির সঙ্গে পরীক্ষা নেওয়া প্রশ্নের সঙ্গে শতভাগ মিল ছিল বলে জানিয়েছেন ঢাকা বোর্ড চেয়ারম্যান প্রফেসর মাহবুবুর রহমান।
বোর্ড চেয়ারম্যান বলেন, সকালে যে সময় প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে বলে শুনেছি, ওই সময়ে পরীক্ষার্থীরা হলেই থাকে। এ কারণে এতে তেমন সমস্যা দেখছি না। তবে আগে জানতে পারলে বোর্ড ভিন্ন সেটের প্রশ্ন দিয়ে পরীক্ষা নিত।

এ ঘটনাকে তিনি ষড়যন্ত্র বলে অভিহিত করে জানান, এটা করা হচ্ছে সরকারকে বিব্রত করার জন্য। প্রশাসনের গোয়েন্দা সংস্থা সব কিছু খতিয়ে দেখছে। এ বিষয়ে হয়তো শিগগির জানা যাবে। এদিকে শনিবার রাতে মেসেজিং অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ফাঁস হয় এসএসসির ঢাকা বোর্ডের গণিত পরীক্ষার প্রশ্ন।
একটি ফেসবুক গ্রুপ থেকে মোবাইল নম্বর নিয়ে পরীক্ষার্থী সেজে একজন অনলাইন সংবাদকর্মী শনিবার রাতে গণিতের যে প্রশ্ন পেয়েছিলেন, হুবহু সেই প্রশ্নেই গণিতের সৃজনশীল ও এমসিকিউ অংশের পরীক্ষা হয়েছে।
এসএসসিতে গতকাল রোববার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত গণিত (আবশ্যিক) বিষয়ের পরীক্ষা হয়। দুপুরে পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে প্রশ্নপত্র দেখার পর মিলিয়ে ফাঁস হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।
কয়েক বছর ধরে পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস নিয়ে ব্যাপক আলোচনা চললেও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বরাবরই তা নাকচ করা হচ্ছিল।
জানা গেছে, বিজি প্রেসে ছাপা হওয়ার পর পরীক্ষা শুরুর ১৫ থেকে ২০ দিন আগে সিল করা প্রশ্ন পাঠানো হয় বিভিন্ন জেলার ডিসি অফিসে, রাখা হয় সেখানকার ট্রেজারিতে।
ডিসি অফিসের ট্রেজারি থেকে পরীক্ষা শুরুর তিনদিন আগে প্রশ্ন যায় প্রতি উপজেলার থানায়। থানা থেকে পরীক্ষার দিন সকালে বিভিন্ন কেন্দ্রে প্রশ্ন পাঠানো হয়। পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে সিল করা প্রশ্নের ফাইল খুলতে হয়।
প্রশ্ন ফাঁসের কৌশল : ঝঝঈ ঊীধস ছঁবংঃরড়হ ২০১৭ ঙহষু উযধশধ ইড়ধৎফ নামে একটি ফেসবুক পাতায় ৯ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৪টা ১৭ মিনিটে ঘোষণা দেওয়া হয়- ‘১০০০% কমন গণিত প্রশ্ন দিব। চবৎ ঝঁন ৮০০। কসম খেয়ে বলতে হবে যে, কমনের পর টাকাটা দিবে। আর কাউকে শেয়ার করবা না। বা করলেও ১ জনের সাথে। যদি রাজি থাকো তাহলে ডযধঃ’ং ঁঢ়-এ মেসেজ দিয়ে গ্রুপে এড হও। ডযধঃ’ং ঁঢ় হঁসনবৎ ০১৭৪৪৬৮১১৩৯ পধষষ দিলে ইষড়পশ দিব।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 271 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ