পুলিশ-র‌্যাব প্রধানকে চিঠি অবৈধ ইন্টারনেট বন্ধে

Print

পাড়া-মহল্লায় অসংখ্য লাইসেন্সবিহীন প্রতিষ্ঠানের অবৈধ ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করতে পুলিশ ও র‌্যাব প্রধানসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহায়তা চেয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।
বিটিআরসি বলছে, অবৈধভাবে সংযোগ দেওয়ায় ইন্টারনেট সেবার মান ব্যাহত হচ্ছে, অপরদিকে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি স্বরূপ। বিষয়টি অতীব জরুরি এবং জাতীয় নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট উল্লেখ করে এ বিষয়ে জরুরি ভিত্তিতে ব্যবস্থা নিতে চিঠিতে অনুরোধ করা হয়েছে।

পুলিশের মহাপরিদর্শক, র‌্যাব মহাপরিচালক, পুলিশ কমিশনারকে মঙ্গলবার (০৯ জানুয়ারি) চিঠি দিয়ে এই অনুরোধ জানিয়েছে বিটিআরসি।
বিটিআরসির সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিকেশন্স উইং) জাকির হোসেন খাঁন জানান, আইএসপি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ’র সভাপতি, সাইবার ক্যাফে ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ’র সভাপতি এবং সব আইএসপিদের চিঠি পাঠানো হয়েছে।
বিটিআরসি’র ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড অপারেশনস এবং এনফোর্সমেন্ট অ্যান্ড ইন্সপেকশন ডিরেক্টরেট বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইকবাল আহমেদ চিঠিতে সই করেন।
চিঠিতে বলা হয়েছে, ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার (আইএসপি) কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বিটিআরসি থেকে ইন্টারনেট সেবার জন্য বিভিন্ন ধরনের লাইসেন্স দেওয়া করা হয়ে থাকে।
‘তবে ইদানিং লক্ষ্য করা যাচ্ছে লাইসেন্সপ্রাপ্ত ওইসব প্রতিষ্ঠান ব্যতিত সারাদেশে পাড়া-মহল্লায় বিভিন্ন নামে অসংখ্য লাইসেন্সবিহীন সংস্থা/প্রতিষ্ঠান/ব্যক্তি অবৈধভাবে ইন্টারনেট সেবা দিয়ে আসেছে, যা আইএসপি লাইসেন্সিং গাইডলাইন ও টেলিযোগাযোগ আইনের ব্যত্যয়। এতে একদিকে যেমন ইন্টারনেট সেবার মান ব্যাহত হচ্ছে, অপরদিকে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি স্বরূপ।’
চিঠিতে দেশব্যাপী সব থানা ও আইন-প্রয়োগকারী সংস্থাসমূহকে বিটিআরসি’র লাইসেন্সপ্রাপ্ত আইএসপি প্রতিষ্ঠানদের কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সার্বিক সহায়তা দিতে বিশেষভাবে অনুরোধ করা হয়।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 214 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
error: ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি