প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় দুই বোনকে প্রকাশ্যে পিটিয়েছে সহপাঠীরা

Print

সোমবার দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে রাজবাড়ী সরকারি কলেজের অদূরে এই ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, দুপুর ১২ টার দিকে কলেজপাড়া এলাকায় এক শিক্ষকের কাছ থেকে প্রাইভেট পড়ে রাজবাড়ী সরকারি কলেজে যাওয়ার পথে ছোট বোনকে তারই সহপাঠী ওই কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক বাণিজ্য বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র সাকিবুল সুমন গতিরোধ করে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে ওই ছাত্রী কলেজে চলে যায়।
এরপর সুমন আরও কয়েক দফা ওই ছাত্রীকে উত্যক্ত করার চেষ্টা করে।
এক পর্যায়ে একই কলেজে স্নাতক শ্রেণিতে অধ্যয়নরত বড় বোনকে ঘটনা জানিয়ে দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে তারা বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেয়। তারা কলেজের অদূরে হোসেন ডাক্তারের বাড়ির সামনে পৌঁছলে সুমন ও তার সহপাঠী রাহাত, শান্ত, কৃষ্ণ, রাকিব, সেলিম ও আসাদসহ ৮-১০ জন তাদের গতিরোধ করে। এসময় বড় বোন প্রতিবাদ করলে ওই ছেলেরা তাকে চপেটাঘাত ও লাঞ্চিত করে। পরে ছোট বোন বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে বখাটেরা তাকেও বেধড়ক মারপিট শুরু করে রাস্তায় ফেলে দেয়।
তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে ওই ছেলেরা পালিয়ে যায়।
এ ঘটনার পর প্রহৃত দু’বোন রাজবাড়ী সরকারি কলেজে ফিরে এসে অধ্যক্ষ এ কে এম জয়নাল আবেদিনকে বিষয়টি অবহিত করেন।
কলেজ অধ্যক্ষ জয়নাল আবেদীন জানান, ঘটনা জানার পরপরই রাজবাড়ী থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে।
খবর পেয়ে রাজবাড়ী থানার ওসি আবুল বাশার মিয়া ঘটনাস্থলে পৌঁছে দু’বোনকে উদ্ধারের পর রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা করান।
রাজবাড়ী থানার এসআই এনসের আলী জানান, এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে। একই সঙ্গে অভিযুক্তদের শনাক্ত করে গ্রেফতারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 138 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ