বহিষ্কার হয়ে ছিঁড়ে ফেলল পাশের পরীক্ষার্থীর উত্তরপত্র

Print

এসএসসি পরীক্ষায় অসদোপায় অবলম্বনের দায়ে নিজে বহিষ্কার হয়েছে। সেই ক্ষোভে পাশের পরীক্ষার্থীর খাতা টেনে নিয়ে ছিঁড়ে ফেলল বহিষ্কৃত ছাত্রীটি। ঘটনাটি দিনাজপুরের চিরিরবন্দর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রের। নিশাত মুনির লিজা নামের ওই বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে থানায়।
মামলার এজাহার ও পরীক্ষা কেন্দ্রে কর্মরত শিক্ষক-কর্মচারী সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) ইংরেজি প্রথম পত্র পরীক্ষা চলাকালে কেন্দ্রের ৭ নম্বর কক্ষে বড়বাউল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিচ্ছিল। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গোলাম রব্বানী আকস্মিক পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শনের সময় ৭ নম্বর কক্ষের ৬৩০১৩৯ রোলধারী নিশাত মুনির লিজাকে দোষণীয় কাগজ থেকে নকল করতে দেখেন। পরে প্রমাণ সাপেক্ষে তাকে বহিষ্কার করেন। এ সময় ক্ষোভে ওই পরীক্ষার্থিনী তার পাশের একই স্কুলের ৬৩০১৪৫ রোলধারী কামরুন্নাহারের উত্তরপত্র টেনে নিয়ে ছিঁড়ে টুকরো টুকরো করে ফেলে। এ ঘটনার কথা ছড়িয়ে পড়লে পরীক্ষা কেন্দ্রে নেমে আসে থমথমে পরিবেশ। খবর পেয়ে চিরিরবন্দর থানা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং বহিষ্কৃৃত পরীক্ষার্থীকে আটক করে।

খাতার ছেড়ার ঘটনা আইনি প্রক্রিয়ায় সমাধানের জন্য কেন্দ্রসচিব কৃষ্ণপদ গত মঙ্গলবার রাতে পাবলিক পরীক্ষা ১৯৮০ সালের ৪২ নং আইনের ১১ এর (গ) ধারায় চিরিরবন্দর থানায় একটি মামলা করেন।
চিরিরবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনিছুর রহমান জানান, আটক পরীক্ষার্থীকে দিনাজপুর নারী ও শিশু আদালতে পাঠানো হয়েছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 288 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ