বাংলাদেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন চান ভারত !

Print

ভারতের হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বলেছেন, বাংলাদেশের নির্বাচন পরিচালনার ক্ষেত্রে আমাদের বক্তব্য খুবই স্পষ্ট, নির্বাচন হতে হবে অবাধ ও সুষ্ঠু।
রবিবার প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এক প্রশ্নের জবাবে ভারতীয় হাইকশিনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা এ কথা বলেন। প্রথম আলোর কার্যালয়ে এ মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়।

হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বলেন, বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক যেকোনো প্রয়াসে সহযোগিতা চাইলে ভারত সানন্দে পাশে দাঁড়াবে। বিশেষ করে, গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে শক্তিশালী করার ক্ষেত্রে। তবে নির্বাচন পরিচালনার ক্ষেত্রে আমাদের বক্তব্য খুব স্পষ্ট: নির্বাচন হতে হবে অবাধ ও সুষ্ঠু।
তিনি বলেন, আমরা বিশ্বাস করি, গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় রাজনৈতিক দলগুলোকে নির্বাচনে অংশ নিতে হয়। প্রতিবেশী হিসেবে, বন্ধু হিসেবে আমরা বাংলাদেশকে একটি সফল গতিশীল গণতান্ত্রিক দেশ হিসেবে দেখতে চাই। পঁচাত্তরের পর থেকে দীর্ঘ সময়জুড়ে এ দেশে গণতান্ত্রিক আকাঙ্ক্ষা বারবার বিঘ্নিত হয়েছে।
হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বলেন, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সম্পদ এ দেশের তরুণ প্রজন্ম। জনসংখ্যার ৭০ ভাগের বয়স ৪০ বছরের নিচে। গণতান্ত্রিক নয়, এমন কোনো পদ্ধতি তারা মেনে নেবেন না। প্রতিবেশী হিসেবে বাংলাদেশের জনগণের প্রতি সব সময় আমাদের শুভকামনা রয়েছে।
ভারতের হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বলেছেন, বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়ন যেন দুই পক্ষের জন্য সুফল বয়ে আনে আর টেকসই হয়, সে ব্যাপারে ভারতের বিশেষ মনোযোগ রয়েছে। আর দুই দেশের সম্পর্কের ঘনিষ্ঠতার ভিত্তি দুই দেশের জনগণ।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 106 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ