বিএনপি অংশ না নিলেও নির্বাচন হবে

Print

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন,ক্ষমতা পরিবর্তনের একমাত্র পথ জাতীয় নির্বাচন। নির্বাচন হবে ব্যালটের যুদ্ধে। প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই তা হবে। বিএনপি এ নির্বাচন অংশগ্রহণ না করলেও ঐ নির্বাচন হবেই,হবে। যে যত শ্লেগান তুলুক কাজ হবে না,এর কোন অর্থ নেই আমাদের কাছে।
জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির উদ্যোগে আজ প্রেসক্লাব কনফারেন্স লাউঞ্জে এক আলোচনা সভায় নাসিম একথা বলেন।

নাসিম আরো বলেন,আগামী নির্বাচনে ১৪দলের নেতৃত্বেই সরকার গঠিত হবে। তিনি বলেন, উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন সরকারকেই ক্ষমতা আসতে হবে। জনগণও এটা চায়। তা না হলে উন্নয়ন মুখ থুবরে পড়বে, জনগণ আবারো অন্ধকারে নিমজ্জিত হবে।
এদিকে জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, জঙ্গী দমনের যুদ্ধ চলছে এবং তা এখনও শেষ করা যায়নি। তবে এটা অনেক অগেই শেষ হয়ে যেতো যদি বিএনপি জঙ্গীদের আশ্রয় পশ্রয় না দিত। দেশ দু’টি যুদ্ধ চলছে। এটি হচ্ছে উন্নয়ন যুদ্ধ। অন্যটি হচ্ছে জঙ্গী দমনে যুদ্ধ। এ দুই কাজেই নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে অনেকের মতে ভাব রয়েছে যে যুদ্ধটা যেনো এটা প্রধানমন্ত্রীর নিজের। আসলে এটা মহাজোট,১৪ দলের সবারই যুদ্ধ। তিনি বএলন,জঙ্গিবাদ বিরোধী লড়াইকে ক্ষতিগ্রস্থ করছে দুর্নীতি-দলবাজী-দখলবাজী-অন্তঃকলহ।
‘জঙ্গিবাদ বিরোধী লড়াইকে ক্ষতিগ্রস্থকারী-উন্নয়ন সাফল্যকে ম্লানকারী দুর্নীতি-দলবাজী-দখলবাজী-অন্তঃকলহ অপকর্ম ও অরাজনৈতিক কর্মকান্ড প্রতিহত কর’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক মি. দিলীপ বড়–য়া, জাতীয় পার্টি (জে-পি) মহাসচিব শেখ শহীদুল ইসলাম, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহদাত হোসেন, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের আহ্বায়ক ডা. ওয়াজেদুল ইসলাম, গণতান্ত্রিক মজদুর পার্টির জাকির হোসেন, বাসদের রেজাউর রশীদ। মুল বক্তব্য পাঠ করেন জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 139 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
error: ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি