বিটিভির জিএম পদে কী মজা

Print

অযোগ্যতার কারণে বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) জেনারেল ম্যানেজারের পদ থেকে মো. মাসুদুল হককে ২৬ জুলাই বদলি করে শিল্প মন্ত্রণালয়ের উপসচিব পদে নিয়োগ দেওয়া হলেও এখনো তিনি বিটিভিতেই বহাল আছেন। তার বিরুদ্ধে অদক্ষতা, সৃজনশীলতার অভাব এবং প্রশাসনিক কাজে ব্যর্থতাসহ নানা অভিযোগ রয়েছে।
আর তার পরিবর্তে জননিরাপত্তা বিভাগের উপসচিব মো. মমতাজ উদ্দিনকে বিটিভির জেনারেল ম্যানেজারের দায়িত্ব দেওয়া হয়। কিন্তু মমতাজ উদ্দিন তথ্য মন্ত্রণালয়ে যোগদান করলেও জেনারেল ম্যানেজার হিসেবে বিটিভির দায়িত্ব এখনো বুঝে নিতে পারেননি, এমনকি তার কার্যালয়েও বসার সুযোগ পাননি। মন্ত্রণালয়ের আদেশ অমান্য করে মাসুদুল হক গুরুত্বপূর্ণ এই পদে কীভাবে এখনো বহাল আছেন তা নিয়ে বিটিভির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বিস্ময় প্রকাশ করছেন। গত বছরের মাঝামাঝি বিটিভিতে জেনারেল ম্যানেজার হিসেবে নিয়োগ পান মো. মাসুদুল হক। সাধারণ নিয়ম অনুযায়ী বিটিভির সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার বা বিটিভি থেকেই এ পদে নিয়োগ পাওয়ার রীতি থাকলেও সেবার এর ব্যতিক্রম ঘটে। জেনারেল ম্যানেজার হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার বছর না ঘুরতেই মাসুদুল হকের বিরুদ্ধে নানা ধরনের অভিযোগ ওঠে। চলতি বছরের ২৬ জুলাই তাকে বদলির আদেশ দেওয়া হয়। কিন্তু মন্ত্রণালয়ের আদেশ অমান্য করে তিনি এখনো বিটিভিতেই বহাল আছেন। মাসুদুল হক নিজে যেমন এ পদ থেকে রিলিজ নেননি, আবার বিটিভি অফিস থেকেও তাকে রিলিজ দেওয়া হয়নি। তার বদলির আদেশও বাতিল করা হয়নি। আর মন্ত্রণালয়ের বদলির আদেশ অগ্রাহ্য করে বিটিভির মতো শীর্ষ প্রতিষ্ঠানের একটি গুরুত্বপূর্ণ পদে এভাবে বহাল থাকার নজির নেই। এরই মধ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. তমিজুল ইসলাম খান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে মো. মাসুদুল হককে বদলি করে শিল্প মন্ত্রণালয়ের উপসচিব করার বিষয়টি জানা যায়। আর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের আরেকটি প্রজ্ঞাপন থেকে মাসুদুল হকের স্থলে জননিরাপত্তা বিভাগের উপসচিব মো. মমতাজ উদ্দিনকে বিটিভির জেনারেল ম্যানেজার হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার বিষয়টি জানা যায়। এরই মধ্যে মো. মমতাজ উদ্দিন তথ্য মন্ত্রণালয়ে যোগদান করলেও জেনারেল ম্যানেজার হিসেবে বিটিভির দায়িত্ব নেননি এবং তার কার্যালয়েও বসেননি। বাংলাদেশ প্রতিদিনের পক্ষ থেকে মো. মাসুদুল হকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে বদলির নির্দেশ হওয়ার পরও রিলিজ হয়নি এমন শখানেক সরকারি কর্মকর্তা আছেন। তাহলে আমাকে নিয়েই শুধু প্রশ্ন করা হবে কেন?’ তিনি আরও বলেন, ‘একটি গ্রুপ আমি বিটিভিতে থাকি তা চাচ্ছে না। আর আমাকে এ পদ থেকে চলে যাওয়ার জন্য এখনো রিলিজ দেওয়া হয়নি। রিলিজ দেওয়ার এক ঘণ্টার মধ্যেই আমি চলে যাব। চাকরির বিধি অনুযায়ী আমি আইনের বাইরে কিছু করতে পারি না। যদি করি তাহলে আমার চাকরি চলে যাবে। ’ বিটিভির মহাপরিচালক হারুন অর রশিদ বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ‘তার রিলিভার (বদলি) এলেই সে যাবে। তার বদলে অন্য কেউ এখানে যদি থাকে সে যখন যোগদান করবে তখন সে (মাসুদুল হক) চলে যাবে। ’ তবে মমতাজ উদ্দিনের তথ্য মন্ত্রণালয়ে যোগদান করার বিষয়টি জানতে চাইলে হারুন অর রশিদ বলেন, ‘তার যোগদানের বিষয়ে কোনো নির্দেশনা আমার কাছে আগে আসতে হবে। ’ তবে মমতাজ উদ্দিন কবে নাগাদ বিটিভির জেনারেল ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন তা জানতে চাইলে বিটিভির মহাপরিচালক বলেন, ‘তা আমি বলতে পারব না। এটি তথ্য মন্ত্রণালয় জানে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 138 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ