বিপজ্জনক ঠোঁটের রোগ

Print
ঠোঁটের মারাত্মক রোগগুলোর একটি হলো ডিসকয়েড লুপাস ইরাইথিমেটোসাস। সংক্ষেপে ডিএলই রোগ বলা হয়ে থাকে। ডিসকয়েড লুপাস ইরাইথিমেটোসাস আলোক সংবেদনশীল ত্বকের বৃদ্ধি বা র‌্যাশ যা স্থানীয়ভাবে সীমাবদ্ধ থাকতে পারে, আবার চারপাশে বিস্তৃতি লাভ করতে পারে। ঠোঁটে যদি ডিএলই রোগ হয় তবে দ্রুত চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে। ডিএলই রোগের চিকিৎসা যথাযথভাবে না হলে স্থায়ী দাগের সৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া ঠোঁট ও মুখের অভ্যন্তরে আলসার বা ক্ষত দেখা দিতে পারে। ভাগ্য খারাপ হলে ডিএলই স্কোয়ামাস সেল ক্যান্সারের কারণ হিসেবে আবির্ভাব হতে পারে। এর অর্থ হলো ডিএলই রোগের চিকিৎসা গ্রহণ না করলে মুখের অভ্যন্তরে বা ঠোঁটে স্কোয়ামাস সেল ক্যান্সার দেখা দিতে পারে। ডিএলই রোগ একটি অটোইমমিউন অচলাবস্থা। অতিরিক্ত সূর্যের আলোর সংস্পর্শ এবং ধূমপান ডিএলই রোগের রিস্ক ফ্যাক্টর। শতকরা ১০ ভাগ ক্ষেত্রে ডিসকয়েড লুপাস ইরাইথিমেটোসাস থেকে সিস্টেমিক লুপাস ইরাইথিমেটোসাস হতে পারে। তাই ঠোঁটের উপর বা মুখের অভ্যন্তরে কোনো লাল বা কালো র‌্যাশ বা দাগ অথবা ক্ষত বা ফুলাভাব দেখা দিলে নিজে চিকিৎসা নিয়ে সময় ক্ষেপণ না করে একজন অভিজ্ঞ মুখের রোগের চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করতে হবে। মনে রাখতে হবে একটু অবহেলা আপনার জীবনে ভয়াবহ বিপর্যয় ডেকে আনতে পারে। ষ ডাঃ মো. ফারুক হোসেন মুখ ও দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ মোবাইল : ০১৮১৭৫২১৮৯৭

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 482 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
error: ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি